ধ্রুবতারা

খাদিজাতুল কুবরা ৬ মে ২০২২, শুক্রবার, ১১:৫৮:৩৪অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য

কেমন করে জেনেছ প্রিয় আমি যে অ-নামিকা?

তাই বুঝি মধুর স্বরে ডাক!

জেনে রেখো; আমি এক বন্দিনী,

চারিপাশে ঘেরাটোপ কুহেলিকা।

জেনে বুঝে কঠিনেরে ভালোবাসিলাম;

সহজে তা যায় না ছোঁয়া!

চোখ ফেরানো ও দায়, এ যে সর্বনেশে মায়া!

তোমার সনে মনে মনে করব বৃষ্টিস্নান!

না হয় খরতাপে পুড়ে ছাই হোক এ জনম।

মেঘের পাহাড় বাড়ে বুকের ভেতর,

সবুজ ঘাসের নরম গালিচা নয় এ চরাচর।

আমি এমনই সৃষ্টিছাড়া!

শাপলা, কমলে পাইনা তল ক্যাকটাসে দেই পাঁড়া,

কাঁটার ঘায়ে বিষের শূল, উসুল হয় ফুটলে ফুল!

শৌখিন প্রেমিকের আমি প্রেমিকা,

কবি মশাইয়ের শেষের কবিতা!

আমার মতো সৌভাগ্যবতী আছে আর?

ঘরে শোভা কেয়া, মন দরিয়ায় ছই বিহীন খেয়া।

আহা প্রেম!

ঘর, বর, সয়ম্বর কে আছে তুল্য তার?

এক বুক যন্ত্রণার কাতরানি সয়ে শেষ অব্দি সত্যি,

তুমিই ধ্রুবতারা!

চোখ থেকে গড়িয়ে পড়া সুখের তপ্তধারা!

সেদিন বুড়ো রিক্সাওয়ালাকে দিতে পারতাম-

ক’টা টাকা বখশিশ,

মনে পড়লে হয় আপসোস।

সে-ই তো বললো তোমায় ডাকতে পাশাপাশি বসতে,

পেলাম তোমার সুভাস, অযাচিত পরশ!

নিপাট ভদ্রলোক নাহলে আরো কিছু হতে পারত যোগ,

বেষ্টিত হতে পারত কোমরে তোমার হাত!

এমন সুযোগ হাতছাড়া করে কোন উদ্ধাহু প্রেমিক?

১০৯জন ১২জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য