ধান কাটার উৎসবে

সুপায়ন বড়ুয়া ৩ মে ২০২০, রবিবার, ১২:২৪:২৩অপরাহ্ন কবিতা ৪৮ মন্তব্য

সুরঞ্জনা,
মনে পড়ে তোমার সেদিন সকাল বেলা
সোনালী ধানের গন্ধ শুখে হাটলাম সারাবেলা ?
আমন ধানের পাকা শীষ গুলো পড়েছিল নুইয়ে
গরীব কৃষক দিন গুণে যায় কপাল কুঁচকে নিয়ে।

দিবা নিশি স্বপ্ন বুনে আলের পাড়ে বসে
কখন তিনি কাটবে ধান গোলায় তুলবে শেষে।
বন্ধুরা সব দিন গুনে যায় মাঠটি পাবে ফিরে
আবার জমবে ফুটবল খেলা ধান কাটার পরে।

একপাশে হবে ফুটবল খেলা আরেক পাশে ভলি
রাতের বেলা আড্ডা জমবে আর ব্যাটমিন্টন খেলি।
নানান রকম উৎসব হবে শিল্পীরা থাকে তৈরী
এইখানে হবে বিজয় দিবস, একুশে ফেব্রুয়ারী।

পাড়ার ছেলেরা মাঠে নেমে যায় কাস্তে হাতে নিয়ে
ধান কাটার উৎসবে মাতে বাদ্য বাজনা নিয়ে।
এ প্রান্তে ছিল দেশের প্রতাকা ও প্রান্তে ফুটবল ভলিবল
বাম পাশে ছিল একতাই শক্তি, ডান পাশে একতাই বল।

সেদিন গ্রামে উত্তেজনা ছিল, ছিল আনন্দ উন্মাদনা।
মান অভিমান সবাই ভুলে এক হওয়ার প্রেরণা।
গ্রামের মায়েরা এনেছিল সেদিন ডাল-ভাত পান্তশালা
বোনেরা সেদিন এনেছিল তারা নানান বরন ঢালা।

সৌখিন ছেলেটি এনেছিল সেদিন আলোক চিত্রশিল্পী
মনের মতো ছবি তুলে সে লিখে যায় শ্রুতলিপি।
তুমি ও সেদিন নেমেছিলে মাঠে ওড়না মাথায় দিয়ে
জল খাওয়ানোর আনন্দেতে কলসী কাকে নিয়ে।

তোমার হাতেও কাস্তে ছিল ছবিটি এখনো আছে।
মিথ্যা বলিনি বোন দেখে নিও তুমি পাছে।
সেদিন গ্রামে আনন্দ ছিল উৎসব ছিল সবে
দু:খ কষ্ট সব ভুলে যায় একতার শক্তি তবে।

সেই মাঠটি আজ হারিয়ে গিয়েছে
স্মৃতি খুঁজে সবাই ঘুরে
সেখানে উঠেছে বসত বাড়ি
নদী ভাঙনের পরে।

গ্রামের ছেলেরা আজও আছে সবে
শহর বন্দর ঘুরে।
আবার সবাই এক হয়ে যায়
যদি কেউ বিপদে পরে।

তাইতো আমি স্বপ্ন দেখি
দেশটি ভরবে সোনায়
মন্দ লোকেরা যতই বলুক
ভরেছে আবর্জনায়।

৩৭০জন ২২জন
0 Shares

৪৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য