দহন কালের কাব্য

নীলকন্ঠ জয় ১৭ এপ্রিল ২০১৪, বৃহস্পতিবার, ১২:০৪:২১পূর্বাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য

দূর্মূল্যের বাজারে অস্তিত্বেই যেখানে প্রশ্ন,
সেখানে তুমি তো এক অমূল্য হীরকখন্ড;
তোমার হাতের শাখা, কিংবা সিঁথির সিঁদুর
ভুল করে নয়, সমাজের প্রতি অগাধ আস্থা প্রমাণে
বেড়ি বেঁধে দিয়েছে তোমার ভীরু হৃদয়ে,
প্রকাশ্যে আস্তাকুঁড়ে ছুঁড়ে ফেলেছে মরিচিকা ধরা সেই আমায়!
এক পরিচিত বুক ছেড়ে, অপরিচিত আরেক বুকে
নিরাপত্তার নামে আজ নিরাপদ বাসা বেঁধেছো তাই।।

ক্ষয়ে যাওয়া প্রথাবদ্ধ সমাজের নিষ্ঠুর অপূর্ণতায়
বিষাক্ত নিঃশ্বাসেও আজকাল নাকি অগাধ ভালোবাসা দেখাও!
হোক না অভিনয়
চলুক না জীবন!
চলতে থাকুক-
চলমান নাট্যমঞ্চে অঙ্কুরিত কষ্টের প্রহসন।

কাক ডাকা প্রহরে, নির্জন দুপুরে –
নিকোটিনহীন ভালোবাসা না হয় ছাই হয়ে যাক অস্তিত্বের টানে,
নিমজ্জিত আবর্জনায় মুখোশ পরা সাধু সমাজের নিষ্ঠুর প্রলোভনে,
চার দেয়ালের প্রতিধ্বনিতেই
খুঁজে নিও তুমি জীবনের মানে ।

আর আমি?
পান করেছি নীরবতার গরল জ্যৈষ্ঠ-বোশেখে,
অবিশ্লেষিত শব্দহীন কোলাহলে,
রক্তমশাল জ্বালিয়েছি আজ পঁচে যাওয়া হৃদয়ের খড় কুটোতে!
খুন করেছি মৃত প্রেম-ভালোবাসা দহন কালের কাব্যে,
ইতি টেনে দেওয়া ফুলস্টপে।
তোমার আমার প্রত্নতাত্ত্বিক ভালোবাসা
শান্তিতেই ঘুমিয়ে থাকুক নিঃশব্দে, আড়ালে।

১৬/০৪/১৩ইং
সন্ধ্যা ৭টা।

৩৬৬জন ৩৬৬জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য