এতকাল যাবৎ এই যে এতো হম্বি-তম্বী ,
রামায়ন ক্লীষ্ট থেকে মহাভারত শ্রেষ্ঠ!
সকালে রাম তো অবেলার রাবণ!
সবই ঐ আমার মায়ের বুকের উপর দাড়িয়ে!

ছোট্টো থেকেই ছেড়াঁ ছেড়াঁ চোখে দেখি ‘মায়ের দহনযাত্রা’!
কাচাঁরোদের রান্নাশালের অন্নপূর্ণা! তো আবার দুপুরে বিশ্বের জজ্ঞালের ‘কালী’!
আর রাতের লিঙ্গশূলে বিদ্ধ পুরুষ-পিতার ‘দ্রোপদী’!
সব বাবাই তো লুটের জন্য পণ
দিয়ে মেয়ে দিয়েছে!
লুঠের মাল!তাই শতাব্দীর পর শতাব্দী হরিলুঠ হয়!

গর্ভদ্বার থেকে বুকের পাঁজরের খোলে কি ব্যাথা!
মায়ের রেচনের সঙ্গে আজকাল ভীষণ রক্তপাত!

ফেকাঁসে শরীরে হলদে চোখে
মা মুখচেপে কাঁদে!
পুকুর ধারে ভাঙ্গাথালার বোঝা হাতে!
গভীরে কাঁপে সারা কালোমেঘের আকাশ!ঝড় ওঠে! নিষ্পাপ ভাই ভাসে!মরে!
বয়সী মা কিছুই কাউ কে
বলতে পারে না!বুক চেপে রাখে!
সঙ্গে থালা!
নেশাগ্রস্থ পিতার শ্রবণ মাত্রা তীব্র বেশ!
জন্ম থেকেই সব মেয়ে অকালের সতীন!
না হয় শশ্মানযাত্রা ভয় কপালে লেগে থাকে তার রেশ!

২১৯জন ২১৯জন
0 Shares

৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য