দর্শন

মাসুদ চয়ন ২৫ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ০৬:৩৬:১০অপরাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য

# দর্শন/
এক অদ্ভুত দর্শন পৃথিবীর জন্য আরাধ্য হতে চলেছে
যাদের আলোক সান্নিধ্য নেই,
যারা কোনোদিন শিল্প প্রিয়ার শৈল্পিক হাতে হাত রেখে পৃথিবীর মুক্ত ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়নি
কোনোদিন চুম্বন আঁকেনি তরুণীর তুলোল ঠোঁটে,
জল মুছে দেয়নি বিরহকাতর প্রিয়ার_
তারা বহুদূর প্রান্তর ঘুরে আপন নিবাসে ফিরে আসে অসহায় শকুনের মতন
মৃত খাদ্যের জোগান তাঁহাদের জন্য!
অথৈ অন্ধকারে যাপনের স্কেচ এঁকে যায় কে যেনো
কাগজের বুকে ফুঁটেছে বিস্মৃত স্মৃতিরা।
না জানি কতো সহজেই জল আসে,
কতো সহজেই আনন্দের প্রেক্ষাগৃহে বেদনার কালিমা ধেয়ে আসে
কতো সহজেই রুপ রঙ বদলায় জীবন নদীর অববাহিকায়_
যদিও স্বপ্নরা স্বর্গ থেকে আসে,
যদিও মন কয় স্বপ্ন আছে স্বপ্নে বাঁচি_
আসলে স্বপ্ন এক মহাকাল রহস্য_
আকাশ থেকে নেমে এসে মহাশুন্যে অদৃশ্য হয়ে যায়,
একদিন সে হারিয়ে যাবেই,স্বপ্ন মানে জীবন পটে মৃত্যু নিয়ে খেলা-
স্বপ্ন হলো ভয় ধরাবার তান,
লক্ষ স্বপ্ন ভুল হয়ে যায়,একটু আধটু থাকে!
আশার দোলাচলে স্বপ্নহীন বয়ে চলা তাই!
মধ্য রাতের পাখিরা ঘুমায়,
সবুজ বৃক্ষরা নিয়ম ভেঙে ঘুটঘুটে আঁধারে বর্ণীল আভা ছড়ায়_
চোখ যারে পায় মন পায়না কেনো!
মুক্ত আকাশের দিকে চেয়ে ভাবি_
একদিন ওই শুন্যপটে লীণ হয়ে যাবো,
জীবনের সমস্ত লেনদেন থেমে যাবে!

(অবক্ষয়ের নামতা)
যাদের শক্তি নেই তারা ভক্তির দাসত্বে নিমগ্ন হতে চায়
আমি চাই মুক্ত করতে সাহস দিতে-
ছুটে চলো হায়েনার হিংস্রতা নিয়ে,হিংস্র হায়েনার থাবায় পুঁজিবাদী সিংহরা পালিয়ে যাক,
ধর্মকে ধর্ষণ করে যে স্মৃষ্টির অনুশাসণ_
ধর্মকে অন্ধাত্বের গন্ডিতে আঁকড়ে ধরে যে অভাগার দল
তারা উভয়ি সাম্প্রদায়িক নপুংসূক,
তারাই মানুষের ভীড়ে অন্ধকার ছড়িয়ে দেয়,
স্বার্থের গন্ধ হৃদয়ে লেপ্টে দেয় শিল্পের মতন_
তাই অসাম্প্রদায়িকতার স্নিগ্ধ সকাল দেখেনি পৃথিবীর আলো আজও!
আর সাম্যস্বচ্ছ আহবান,কবিতার কাব্যিক মূর্ছনায় রয়ে যায়,!
কতো পথ এভাবে পেরুলো!
কতো দেহের রক্তের ইতিহাস অজানায় রয়ে গেলো!
শুধু জানি,করুণার উদ্রেক হয়নি এখনো!
পৃথিবীতে স্বার্থের তানপুরা বেজে চলেছে অনাদিকাল_
বিচ্ছেদ আরাধনায় নিমগ্ন মনুষ্যকূল!
ঈশ্বর বোবা,ঈশ্বর এতো নিরুপায়,
এক অদ্ভুত শৈশব লালন করে যায় অদৃশ্য অজানায়-
(মাসুদ চয়ন)

১৭৩জন ৬৭জন
3 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য