জাতির জনকের দৌহিত্র , মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একমাত্র পুত্র, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেস্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে কাগজে কলমে হত্যা করলো তেল মর্দনকারী আমলারা।

এই উপমহাদেশে প্রতিটি শাসক গনের চারপাশে সব সময়ই কিছু তেলবাজ, চামচা প্রকৃতির মানুষের অস্তিত্ব থাকে। এরা তেলবাজি করে নিজেদের স্বার্থ হাসিল করে। এরা ক্ষমতাধরদের জুতো, পায়ের তলা জিহবা দিয়ে চেটে পরিস্কার করতেও দ্বিধা করে না। যে কোনো বিষয়ে ইয়েস স্যার/ ম্যাডাম এ প্রস্তুত এরা।

বর্তমান সরকারের তেলবাজদের মান সর্বনিন্ম পর্যায়ে। এদের সামান্যতম মেধা নেই। গোপাল ভাড়ও একজন তেলবাজ ছিলেন, তার মেধা, বুদ্ধির ধারে কাছেও এরা নেই। কিছু কিছু তেলবাজ মন্ত্রী/ আমলাদের কর্মকান্ড হাসির খোরাক জোগায় আমাদের।

সজীব ওয়াজেদ জয় এর যোগ্যতা সম্পর্কে আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই। ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে তাঁর অবদান প্রস্নাতীত। দেশের মন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর উপদেস্টাদের মধ্যে তিনিই একমাত্র সফল বলে আমার ধারনা।

কিন্তু তাঁর জন্মবার্ষিকীতে রাস্ট্রিয় অংশগ্রহণ খুবই দৃস্টিকটু। তিনি আমাদের গর্ব, আমরা তার সুস্বাস্থ, দীর্ঘ জীবন আন্তরিক ভাবে কামনা করি। তবে তাঁর জন্মদিনে রাস্ট্রের অংশগ্রহণ সমর্থন করিনা। একজন উপদেস্টা হিসেবে যদি রাস্ট্রের অংশগ্রহন থাকে, তাহলে সমস্ত মন্ত্রী এবং উপদেস্টার জন্মবার্ষিকীতে তা থাকা উচিত।

গত ২৭ জুলাই সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ সজীব ওয়াজেদ জয় এর ৫০ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে স্মারক ডাক টিকেট, উদ্বোধনী খাম ও বিশেষ সিল মোহর অবমুক্ত মুক্ত করা হয়। এটি যে সম্পুর্নই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খুশি করার জন্য করা হয়েছে তা সমস্ত জাতিই বুঝতে পেরেছে। ডাক বিভাগ অন্য কোনো মন্ত্রী বা উপদেস্টাদের বিশেষ দিনে এমন প্রগ্রাম নিয়েছে বলে আমার জানা নেই। এই মেধাহীন, অকর্মন্য তেলবাজরা উদ্বোধনী খামে চরম একটি আহাম্মকি কাজ করেছেন। খামের উপরে সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরে ব্রাকেটে প্রিন্ট করা হয়েছে ( ১৯৭১- ২০২১ )

এই গর্ধব, আহাম্মক, মেধাহীন চাটুকর, তেকবাজরা কি জানে না এভাবে ব্রাকেটে সন লিখলে বুঝা যায়, তিনি ১৯৭১ এ জন্মগ্রহণ করেছেন, ২০২১ এ মৃত্যু বরন করেছেন। সজীব ওয়াজেদ জয় কি ২০২১ এ মৃত্যু বরন করেছেন? আহাম্মকেরা কি ডকুমেন্টারি জয়কে মৃত ঘোষনা করলো?

সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই খামে স্বাক্ষর করেছেন। এসব বিষয় দেখার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোনো যোগ্য আমলা নেই? ডাক বিভাগের কাছে সজীব ওয়াজেদ জয় মনে হয় মৃত।

এইসব মেধাহীন, অকর্মন্য, অযোগ্য, তেলবাজদের কি অপসারণ করা হবে?

কিছু উদাহরণ:

বংগবন্ধু সম্পর্কে উইকিপিডিয়ায় লেখা: 

ইন্দিরা গান্ধী সম্পর্কে উইকিপিডিয়া লেখা:

তাজউদ্দীন আহমদ সম্পর্কেভ উইকিপিডিয়ায় লেখা: 

শেখ ফজিলাতুন্নেছা সম্পর্কে উইকিপিডিয়ায় লেখা: 

  শেখ কামাল সম্পর্কে উইকিপিডিয়ায় লেখা: 

২৮২জন ১১২জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য