জন্ম মৃত্যু এক জীবনের সঙ্গী

 পূর্ব জন্মের কোন এক সন্ধি ক্ষণে

আমরা ছিলাম পাশাপাশি,আবারও

দ্বিতীয় জন্মের আর্বিভাবে বিদায় ভূবন ক্ষণস্হায়ী।

জীবনের শেষ অধ্যায় মৃত্যুর অনুভূতি

কেউ কি কখনও পেয়োছ কভূ,

আমি দেখেছি মৃত্যুর দুয়ারে দু,দুবার দাড়িয়েও

আমি অবিচল স্হির তোমাদের পাশা পাশি।

প্রথম মৃত্যুর স্বাধে

সাতার না জানা কৈশরের চঞ্চলতার দূরন্ত পনায়

তিনটি জীবনের ইতি কথায়, ডুবন্ত

তখনও আমি সাতটি ঘন্টা ছিলাম জলের গভীরে।

দ্বিতীয় মৃত্যুর

স্পর্শ কাতর মনে ভয়ার্ত ছায়া

সমাধির ক্ষীর্ণ ছিদ্রে কৌতুহলী দেখা

মুহুর্তেই গা ছম ছম শিহরিত হৃদয়

দৃষ্টিহীন জগত যেন আমার আমি হারা।

অসার লাশের ধর্মের রিতীনিতী

দাফন-কাফন,

অসার লাশের ধর্মের রিতীনিতী

জলন্ত অগ্নিতে চন্দন কাঠের সমাধি।

পৃথিবীর বিচারে শত অপরাধী তবুও সাধু আমি

পূর্ণ্যের হিসাবের খাতায় শূণ্য জানি

স্রষ্টার দরবারে স্বাক্ষী আমার অঙ্গ পতেঙ্গ

সত্য-মিথ্যের হিসেব হবে পাকা পাকি।

তৃতীয় জন্মের অপেক্ষায়

অনন্ত সময়ের তরে উঠব জেগে হায়সরে

রায় কার্য্যের মাঝে বাচতে হবে

হয়তো অপার স্বগীয় সূখে, নতুবা

অকল্পনীয় আযাবে।

0 Shares

২৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ