তাজহাট,জমিদার বাড়ি

আরজু মুক্তা ২৬ জুন ২০১৯, বুধবার, ১০:১৭:৪৩অপরাহ্ন ভ্রমণ ১৮ মন্তব্য

বাংলাদেশের রংপুর শহরের অদূরে তাজহাটে অবস্থিত এ জমিদার বাড়িটি একটি ঐতিহাসিক প্রাসাদ। যা এখন জাদুঘর হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

এটি বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে মহারাজা কুমার গোপাল লাল রায় নির্মাণ করেন।সময় লেগেছিলো ১০ বছর।২১০ ফুটের মতো প্রশস্ত ও চার তলার সমান উঁচু।এর গঠণশৈলী মুঘল স্থাপত্য থেকে অণুপ্রাণিত ।মার্বেলের সিঁড়ি বেয়ে উঠলেই আছে বেশ কয়েকটি প্রদর্শনী কক্ষ।ও হ্যাঁ, মোট ৩১টি সিঁড়ি বেয়ে উঠতে হবে।এখানে দশম ও একাদশ শতাব্দীর টেরাকোটার শিল্পকর্ম ,আরবী ও সংস্কৃত ভাষায় লিখা কিছু প্রাচীন পান্ডুলিপি,মুঘল আমলের কোরআন শরীফ,মহাভারত ও রামায়ণ আছে।পেছনের ঘরে আছে বেশ কয়েকটি কালো পাথরের হিন্দু দেবতা বিষ্ণুর প্রতিকৃতি ।

প্রাসাদ চত্বরে আছে বিশাল মাঠ,গাছের সারি,নান্দনিক ফুলের বাগান এবং দুটি পুকুর।

পর্যটকদের মন কাড়তে এ জমিদার বাড়ির জুড়ি নেই।

**যাদুঘরে ছবি তোলা নিষেধ।

গত জানুয়ারি মাসে আমি ভ্রমণে গিয়ে এই ছবিটি তুলেছিলাম।

আশা করছি,আপনারাও ঘুরে আসবেন।। ভালো লাগবে।।

২৩৫জন ৯৭জন
7 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য