তন্ত্রের খেরোখাতা

সুপর্ণা ফাল্গুনী ১৭ মে ২০২০, রবিবার, ০৯:৩০:৪৩পূর্বাহ্ন কবিতা ২১ মন্তব্য

রাজতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র কোথায় আজ তারা?
মুখ থুবড়ে পড়েছে বস্তির ঐ গিঞ্জি গলির নর্দমায়।
যেথায় ফাঁক ফোকরে চলে হিরোইঞ্চি আর গাঁজা খোরদের
জীবন-দর্শণের কচকচানি,
রাতের আঁধারে লাস্যময়ী হয়ে ওঠে ললনা-রা
জীর্ণশীর্ণ, এলেবেলে দেহবল্লরীতে,
ক্ষুধার্ত নেড়ি কুত্তাটা সঙ্গী হয় হাড্ডিসার পথশিশুদের কোটরে।
যেথায় চর্চিত হয় প্রতিনিয়ত খিস্তিখেউড় আর কাম-কলার নৈপুণ্য।

রাজতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র বহাল তবিয়তে আছে
উচ্চবিত্ত, সমাজপতিদের ড্রইংরুমের অলংকৃত কাঁচ-ঘরে বন্দী।
যেথায় সমাজসেবা হয় অর্থনীতি আর নারীত্বের যৌনসম্ভোগে,
পরপুরুষ আর পরনারীর শৌর্যবীর্যে।
সন্তানেরা গাড়ি হাঁকিয়ে ঠাটবাটে রাত্রি-জলসায়
বুঁদ হয়ে রয় সখা সখি লয়ে মদিরাতে।
সুখের ঠিকানা খুঁজতে গিয়ে পড়ে রয় শিকড় উপড়ে
উঁচু তলার স্টিকার গায়ে, যেথায়-সেথায়।
কে-বা পিতা, কে-বা মাতা ,
কোথায় গন্তব্য জানা নেই-কো কারো!

সব তন্ত্র মিলে হয়েছে নীতি আর বাঁধা তন্ত্র
ঐ মধ্যবিত্তদের চার দেয়ালে।
সহস্র স্বপ্নালু-পালক ছিন্নভিন্ন,
বিদ্যার কালি লেপ্টে দেয় বেকারত্বের অভিশাপ,
নেশাতুর চোখে জ্বলে না-পাওয়ার আক্ষেপের
হিংসা-প্রতিহিংসার অগ্নিশিখা অনির্বাণ।
সুখসারি অধরা-ই রয়ে যায় আমৃত্যু আত্ন-অহমিকা,
স্বপ্ন-বুনন, সমাজের দায়-দায়িত্বের যাঁতাকলে।

১৭৭জন ৮জন
0 Shares

২১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য