জোড়া শালিক

সাদিয়া শারমীন ২৫ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার, ০৩:৫২:২১অপরাহ্ন গল্প ১৮ মন্তব্য
টানা বারান্দার একপাশে কাঠের চেয়ারে বসে ঝাপসা চোখে দূরে তাকিয়ে রহিমা বেগম।সামনের আঙিনায় দুটো শালিক খাবার খোঁজায় ব্যস্ত।শীতের সকালের সোনালী রোদ খয়েরী শালিক দুটোকে আরো বেশি সুন্দর লাগছে।

শালিক দুটোকে দেখে রহিমা বেগমের মায়ের কথা মনে পড়ে গেল। মা সবসময় বলতেন,জোড়া শালিক দেখলে নাকি যাত্রা শুভ হয়। যখন তাঁর ষোল বছর বয়স,যাত্রা শুরু করেছিলেন শ্বশুর বাড়ির উদ্দেশ্যে।পথের মধ্যে জোড়া শালিক দেখেছিলেন।যাত্রা শুভ হয়েছিল কিনা জানেন না,কিন্তু শ্বশুরবাড়ির  জীবন খুব একটা সুখের হয়নি। যৌতুক লোভি স্বামী আর শাশুড়ীর নানা অত্যাচারের মধ্যে দিয়েই পার হয়েছে সময়।এরমধ্যে চারটি সন্তান জন্ম,লালন-পালন সব করতে হয়েছে।সন্তানরা শিক্ষিত এবং প্রতিষ্ঠিতও হয়েছে।
চৌষট্টি  বছর বয়সে বিধবা রহিমা বেগম আরো একবার যাত্রা শুরু করেছিলেন।সেবারও পথের মাঝে জোড়া শালিক দেখেছিলেন।সেবারের যাত্রাও শুভ হয়েছিল কিনা তিনি জানেন না। আজ প্রায় তিন বছর হয় কোন সন্তানের সাথেই তেমন ভাবে যোগাযোগ হয় না। বৃদ্ধা আশ্রমের টানা বারান্দায় কাঠের চেয়ারে বসে এখন শুধুই অপেক্ষা আর দিন গোণা হয় জীবনের শেষ যাত্রার।
২৮৬জন ২১১জন
4 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য