জীবন যেখানে যেমন

জিসান শা ইকরাম ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার, ১১:২৪:০৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২০ মন্তব্য

বেশ কিছুদিন ব্যস্ততার কারণে প্রিয় সোনেলার সোনা মানুষদের লেখা পড়া হয়না, নিজের লেখা হয়না। ব্যবসার কারণ বাদেও সামাজিক কিছু অ-উপেক্ষণীয় কাজ, এবং গতকাল অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের প্রচার কাজে পরম ব্যস্ত সময় কাটিয়েছি। একটানা দশ দিন নির্বাচনের প্রচার কাজে ব্যস্ত ছিলাম। স্বাভাবিক ভাবেই এই দেশের একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে ১৯৭১ এর পরাজিত রাজাকারদের প্রতি সহানুভুতিশীল দল এবং জোটের বিরুদ্ধে ছিল এই প্রচারণা। ইতোমধ্যে নির্বাচনের ফলাফল সবাই জেনে গিয়েছেন। কেন এমন অভাবনীয় ফলাফল হলো, এর অনেক বিশ্লেষণ ভবিষ্যতে পাওয়া যাবে। আমি আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা, অতীত অভিজ্ঞতা, বিবেচনা ইত্যাদির উপর নির্ভর করে ভবিষ্যতে কিছু লেখার ইচ্ছে পোষন করছি।

প্রত্যাশার চাপ নিজেকে ছাড়িয়ে যায় অনেক সময়ই,
সময়ের মই বেয়ে ওঠা হয়না চূড়ায় মায়া মমতায়
তারপরেও অপেক্ষায় থাকি তার,

ঘটনা বহুল ২০১৮ অতীত হতে আর মাত্র কয়েক মিনিট বাকি আছে। মহাকালের গর্ভে তলিয়ে যাবে এই ২০১৮ সন, আর ফিরে আসবেনা। তবে ঘটনা গুলো থেকে যাবে আমাদের মাঝে। আমরা ভালো কি মন্দ সময় ছিলাম ২০১৮ সনে তা নিরুপণ করবে আগামী ২০১৯ সন।

সোনেলা ব্লগে এই সময়ে আমরা অভাব বোধ ( মিস ) করেছি  শুন্য শুন্যালয়নাসির সারওয়ার , আগুন রঙের শিমুল , প্রহেলিকা , লীলাবতীমিষ্টি জিন  ইকরাম মাহমুদ , , ব্লগার সজীব মেহেরী তাজঅরণ্য  এবং আরো অনেক ব্লগার/ লেখকে। পেশাগত ব্যস্ততা, পারিবারিক ব্যস্ততা এবং নানাবিধ কারণে এই সমস্ত ব্লগারগন সোনেলায় নিয়মিত আসতে পারেননি বা কেহ কেহ একেবারেই আসতে পারেননি। ২০১৯ সনে এনাদের সবার পদচারনায় মুখরিত হবে সোনেলার উঠোন এই প্রত্যাশা করি।

২০১৮ সনে প্রাপ্তিও কম নয় সোনেলার। এই বছরে সোনেলা পেয়েছে নিয়মিত কয়েকজন ব্লগার, লেখক। যারা অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে সোনেলার উঠোনে বিচরণ করছেন। এনাদের মধ্যে প্রথম থেকে সোনেলার প্রতিটি লেখা পড়েন এমনও আছেন। সাবিনা ইয়াসমিন ,তৌহিদ , ,পথহারা পাখি , বন্যা লিপি ,,  এনাদের মধ্যে অন্যতম। সোনেলায় আরো বেশী বেশী লেখা ও সময়ের প্রত্যাশা করি উনাদের কাছে।

সেই কত অযুত নিযুত বছর আগে দেখা হয়েছিল আমাদের
তার পরে খসে পরেছে অজস্র পালক, রঙ বদলে গিয়েছে দুজনের
অনিঃশেষ মুগ্ধতায় এখনো মগ্ন হয়ে থাকা, যেন ফিরে পাওয়া আবার,

কলম দিয়ে লেখা হয়না কত বছর হয়ে গেলো। তাই বলতেও পারিনা আজকাল লিখতে বসলে কলম থেমে যায়, কলম চলে না। ল্যাপটপ, ট্যাব, মোবাইলের যুগে কি বলা যায় এখন? আঙ্গুল চলে না? বা ল্যাপটপ, ট্যাব, মোবাইলের বাটন টেপা থেমে যায়? ভাইরে লেখা একটি প্রবাহমান স্রোতের মত, যখন আসবে তা বাঁধ দিয়েও আটকানো যায়না। ইচ্ছে করলেই জোর করে লেখা যায় না।

সবাইকে আগত নতুন বছরের শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা।

 

 

৪৩৬জন ৪৩৬জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ