মানুষশুন্য জগতে প্রথম মানব এবং মানবী হযরত আদম (আঃ) কে পাঠালালেন আল্লাহ তায়ালা।
এরপর বিভিন্ন সময়ে পাঠালেন আল্লাহর প্রিয় কিছু মানুষ :
হযরত মূসা (আঃ)
হযরত দাউদ (আঃ)
হযরত ঈসা (আঃ)
এবং আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ মুস্তাফা (সা:) কে ।

আমরা মুসলিমগন আল্লাহর প্রেরিত পুরুষদের উপর আস্থা অর্পণ করে ঈমানকে দৃঢ় করি ।
এসব আমরা আমাদের ধর্মীয় গ্রন্থ থেকে জানি এবং বিশ্বাস করি।

আল্লাহ কিন্তু তাঁর প্রিয় এই মানুষদের তুলনায় আর একজন মানুষকে বেশি ভালোবাসেন। যা আমি এতদিন বুঝতে পারিনি। অবিশ্বাস করেছি। আর অবিশ্বাস করে এর শাস্তিও হাতে নাতে পেয়েছি। আল্লাহ তাঁর প্রেরিত মানুষদের মাঝে সবচেয়ে বেশী ভালবাসেন আমাদের পাসের জেলায় জন্ম গ্রহণকারি দেলোয়ার ওরফে দেউল্যাকে । তাই এই সমস্ত নবীদের বাদ দিয়ে দেউল্যাকে চাঁদে দেখিয়েছেন। আর আমি কিনা পাসের জেলার একজন মানুষ হয়ে বুঝতে পারলাম না !!
আল্লাহ্‌র এই মাজেজা বুঝতে না পেরে উল্টা ‘ দ তে দেউল্যা চোরা , তুই রাজাকার তুই রাজাকার ‘ শ্লোগান দেই !! লানৎ আমার উপর বর্ষিত হবার পরে এখন আমার হুস ফিরেছে ।

এর আগে শুনেছিলাম দেউল্যাকে গালাগালি দেয়ার কারনে , কোথায় যেন কার কার মৃত্যু হয়েছে। এবার একশন আমার উপরই ।

১/ গত পাঁচ দিন যাবত আমি আমাশয় ভুগছি । শেষ কত বছর আগে আমার আমাশয় হয়েছিল , তা মনে নেই।
২/ বাসার স্টোর রুমে হঠাৎ আগুন ধরে যায় – দাউ দাউ করে জ্বলে উঠে কম্বল এবং কিছু কাগজে। আর পাঁচ মিনিট পরে এ আগুন দেখলে রক্ষা ছিলনা।
৩/ আমার ছোট ছেলে প্রিয়র পক্স গত সাত দিন যাবত।

আমার আম্মা এসব বালা মুছিবত থেকে পরিত্রাণের জন্য মিলাদ এবং এতিম খানার এতিমদের একবেলা খাবার মানত করেছিলেন ।


গতকাল জুম্মা বাদ মিলাদ এবং এর পরে ৫৩ জন এতিমকে দুপুরের ভাত খাওয়ালাম ‘ যত ইচ্ছা খাও ‘ এই নীতিতে।

আমার নিজের উপর আল্লাহ প্রদত্ত বালা মুছিবত দেখে সবাই সতর্ক হবেন আশাকরি। বিশেষ করে দুর্বল চিত্তের মানুষদেরর জন্য – এই লেখায় অনেক নিদর্শন আছে ।

তবে, আমার মত যারা ঘার ত্যারা , তাঁরা আসুন শ্লোগান দেই ‘ দ তে দেউল্যা চোরা , তুই রাজকার তুই রাজাকার’।
শুধু চাঁদ কেন ? সূর্যতেও যদি দেউল্যাকে দেখা যায় , আল্লাহ যতই আমাদের পূর্ববর্তি নবী রাসুলদের চেয়ে দেউল্যাকে ভালবাসুক – এই শ্লোগান চলবে।

২৫২জন ২৫২জন
0 Shares

৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য