stop terrorism

পুরো বিশ্বজুড়েই চলছে জঙ্গি আতংক। কিন্তু গত পরশুর ঘটনার পর আমাদের দেশ বেশ নড়ে চড়ে উঠেছে। কেন এমন হলো, কে এমন করলো, কি তাদের উদ্দেশ্য এসব বিতর্কেই ভরে আছে সোস্যাল মিডিয়া। যেই করুক, যে জন্যই করুক এতটুকু কারো বুঝতে বাকি নেই কিছু মানুষ ভুল কন্সেপ্ট নিয়ে চলছে আর তারাই এমন করছে। এই জঙ্গিবাদ আজকের জিনিস না। যুগ যুগ ধরেই চলে আসছে। বহু মানুষ যেমন ভিক্টিম হচ্ছেন। তেমন বহু মানুষ এসবের বিরুদ্ধে কাজও করে যাচ্ছে। সিনেমা নির্মাতারাও পিছিয়ে নেই। বানাচ্ছেন জঙ্গি রিলেটেড মুভি। এসব মুভির মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলছেন জঙ্গিবাদের ভয়ংকর চিত্র, সমাজের চিত্র। আমি সবসময়ই সাধুবাদ জানাই যারা একশন, ড্রামা, থ্রিলার মুভির পাশাপাশি এসব রিয়ালিস্টিক মুভি বানান। অন্য ক্যাটাগরির সাথে আমি এই ক্যাটাগরির মুভিও অনেক বেশি পছন্দ করি।
জঙ্গিবাদের ফাঁদে বশিরভাগই পরেছে টিন এজার কিংবা তরুন সমাজ। কিশোর বয়সে মানষের ইমোশন বেশি থাকে। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়েই তাদের মাথায় বিভিন্ন ধরনের কু চিন্তা, কুবুদ্ধি ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। কোমল ভদ্র একটা যুবক হয়ে উঠে ভয়ংকর খুনি। আমি এটা দাবী করছিনা যে মুভি দেখিয়ে তাদের স্বাভাবিক বানানো যাবে, কারন তাদের মাথায় যেই বিষ ঢুকানো থাকে তার এন্টিডট এখনো আবিষ্কার হয়নি। তবে হ্যাঁ যারা এখনো ইনফেক্টেড না তাদের এসব মুভি দেখিয়ে কিছুটা প্রবণতা কমানো সম্ভব। এই যুগে তরুণ সমাজ মুভি এডিক্টেড হয়ে গেছে। কম বেশি সবাই মুভি দেখে। শুধুমাত্র ফিকশন মুভি সাজেস্ট না করে এসব মুভি দেখানোও উচিৎ। তাই আজ আমি এরকমই ৫টা মুভি নিয়ে লিখছি যেখানে জঙ্গিবাদের ঘৃণ্য রুপ তুলে ধরা হয়েছে যা আমাদের সমাজের উপর বাজে প্রভাব ফেলে………

 

Khamosh Pani (Pakistan 2004)

movie_40189

১৯৭৯ সালে পাকিস্থানের ছোট একটা গ্রামে বসবাস করে মা এবং ছেলে। গরিব এই মা ছেলেকে প্রচন্ড ভালোবাসে, ছেলেরও মাকে ভালোবাসে। বন্ধুদের সাথে হেসে খেলেই কাটছিলো টিন এজার ছেলের জীবন। কিশোর বয়সের দূরন্তপনার মাঝে ভালোবেসে ফেলে গ্রামেরই একটা মেয়েকে। সব খুব সুখে শান্তিতেই কাটছিলো। হঠাত জঙ্গিবাদের কালো ছায়া ঘিরে নিলো ছেলেকে। মায়ের ভালোবাসা কি ফেরাতে পারবে ছেলেকে স্বাভাবিক জীবনে? নাকি ছেলে হারিয়ে যাবে জঙ্গিবাদের গভীর কালো অন্ধকারে????
YouTube Link https://m.youtube.com/watch?v=zu9p49NJZ9w

 

Aamir (India 2008)

aamir_ver5_xlg

লন্ডন থেকে ইন্ডিয়া ফিরতেই কারা যেন ডাক্তার আমিরের হাতে একটা মোবাইল ফোন হাতে ধরিয়ে দিলো। ফোনে সে দেখলো তার পুরো পরিবারকে জিম্মি করে রাখা হয়েছে এবং তাদের কথা না শুনলে আমিরের পরিবারকে হত্যা করা হবে। বাধ্য আমির তাদের কথামত কাজ করতে থাকে ঘটতে থাকে ঘটনা। তারা কি চায়? কেনই বা আমিরকে দিয়ে এসব করাচ্ছে?? ধিরে ধিরে খুলতে জটলা, বের হয়ে আসে কারন।
Download Link –http://bdupload.org/s7ltu2tdx5b3

 

Khuda Kay Liye(Pakistan 2007)

Khuda20Kay20Liye20204-31-1442422828

মনসুর এবং সারমাদ দুই ভাই। সুখে শান্তিতেই চলছিলো তাদের পরিবারের দিন। দুই ভাইই মিউজিক ভালোবাসে। কিন্তু একদিন উগ্রচিন্তার হাতে পরে নষ্ট হতে থাকে সারমাদের জীবন। তাদের পরিণতি কি হয়েছিলো, কেন হয়েছিলো এসব খুঁটিনাটিই মুভির বিষয়বস্তু। মুভিতে অভিনয় করেছেন পাকিস্থানি সপারস্টার শান শাহিদ এবং কাপুর ও সন্স খ্যাত ফাহাদ খান।

YouTube Link – https://m.youtube.com/watch?v=E7cvbs5dTiA

 

A Wednesday!(India 2008)

27082

নিরাজ পান্ডের পরিচালনায় মুভিটিতে একি সাথে একটি এন্টি জঙ্গি এবং ক্রাইম থ্রিলারের স্বাদ পাওয়া যায়। মুভিতে অনুপম খেরের জীবনে ঘটে যাওয়া একটি কেসের উপর নির্ভর করে বানানো। যেখানে নাসিরুদ্দিন শাহ্‌ একটি পুলিশ স্টেশনে বোমা সেট করে এবং কয়েকজন আটককৃত জঙ্গিদের মুক্তি দাবী করে। পুলিশের হাজার চেষ্টা করেও তাকে খুঁজে বের করতে পারছেনা কারন সে কল করছে আনট্রেসাবল ডিভাইস থেকে। চলতে থাকে ঘটনা……………………
Download Link –https://userscloud.com/f00x3ff46nkg

 

Runway (2010 film)(Bangladesh 2010)

1fjBkGg

যদিও দেশে এ জাতিয় মুভির দরকার আছে তবুও আমাদের সেন্সর বোর্ড কেন যেন এই মুভিগুলোর সেন্সর দিতে চান না। তাই নির্মাতারাও এসব মুভি বানানো প্রায় বন্ধ করেই দিয়েছেন। তারেক মাসুদ পরিচালিত এই মুভিটি কিছুটা পাকিস্থানি খামোশ পানির মত হলেও প্রেক্ষাপট টা কিছুটা ভিন্ন। গরিব পরিবারের ছেলে কিভাবে জঙ্গিবাদে জড়িয়ে যায় তাই দেখানো হয়েছে মুভিতে।
YouTube Link –https://m.youtube.com/watch?v=cVHr6tMpU_I

 

আমার মনে হয় মুভিগুলো সময় উপোযোগি। আপনার পরিবারের টিন এজের ছেলে মেয়েকে নিয়ে দেখতে বসুন মুভিগুলো। আশা করি খারাপ লাগবেনা।

১৪০জন ১৩৯জন
0 Shares

৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন