রবীন্দ্রনাথ হিংসিত হয়ে তাঁর আত্মীয়া কে কাজী নজরুলের সাথে বিয়ে দিয়েছিলন । সেই হিন্দু মহিলা খাবারের সাথে ধীরে ধীরে মাথা খারাপের ওষুধ দিয়ে কাজী নজরুলকে পাগল বানিয়ে ফেলেছেন।
কেন হিংসিত হলেন ?
কারন রবীন্দ্রনাথ হিন্দু , সে নোবেল পেয়েছে । একজন মুসলিম যদি নোবেল পায় তাহলে রবীন্দ্রনাথের দাম থাকেনা। আর তাছাড়া হিন্দুরা কোনদিন মুসলমানের ভালো চায়নি। হিন্দুরা আমাদের শত্রু।

ছোট বেলায় যে হুজুরের কাছে আরবি শিখতাম , উনি আমাকে এই ঐতিহাসিক তথ্যটি দিয়েছিলেন। দীর্ঘদিন এটি মনের মাঝেও ছিল। আকাশবাণীতে রবীন্দ্রসংগীত শুনছিলেন আম্মা , আমি তাঁকে শুনতে নিষেধ করি। কিন্তু আম্মা শুনবেনই। এরপর আম্মাকে এই কাহিনী বলি।
‘বেগম ‘ পত্রিকা পড়া আম্মা ঠান্ডা গলায় বললেন যে এসব মিথ্যে । পরের দিন হুজুর আসলে আম্মা তাঁকে জিজ্ঞেস করলেন , আপনি এসব মিথ্যে কথা কেন শিখিয়েছেন ? হুজুর বললেন যে এটি সত্যি । আম্মা বেশ রাগত ভাবেই জিজ্ঞেস করলেন , আপনি কি কাজী নজরুলের শশুরের নাম জানেন ? কেমন আত্মীয়া হন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ? হুজুর আমতা আমতা করে – না মানে , না মানে , আমি ঠিক জানিনা , এসব আমাকে বলেছেন একজন হুজুর ।

ওইদিনই চলতি মাসের বেতন দিয়ে হুজুরকে বিদায় দেয়া হলো। হুজুরেরও আসলে দোষ নেই, উনি এক হুজুরের কাছে শুনে সরল বিশ্বাসে বিশ্বাস করেছিলেন। যাচাই করার প্রয়োজন মনে করেননি। কারণ হুজুররা এমন মিথ্যে বলতে পারেন , এটি তাঁর ধারণায় ছিল না।

তোতা পাখির জীবন এদের। আমিও হতে পারতাম এমনি তোতা পাখি ।

লেখাটি আমার একটি ফেইসবুক স্ট্যাটাস

৭৫৩জন ৭৫৩জন
0 Shares

১৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ