সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

অনির বউ হবে এই স্বপ্ন হৃদয়ে ধারণ করে একটু একটু করে বেড়ে উঠছিল রূপা। রূপার দুচোখে অনিকে ঘিরে অজস্র স্বপ্নের আনাগোনা। সদ্য কৈশোরে পা দেওয়া রূপা জানে না বিয়ে সংসার কাকে বলে? সে শুধু জানে অনির বউ হবে। রূপা যতো বেড়ে উঠছিল অনির প্রতি তার আকর্ষণ ততোই বেড়ে যাচ্ছিল।

রূপা তখন নবম শ্রেণীর ছাত্রী। বয়স ১৪/১৫ মাঝামাঝি। বিপদজনক সময়। প্রথম প্রেমে পড়ার বয়স। এবার অনির প্রতি রূপার আকর্ষণ প্রেমে রূপ নিলো। প্রথম রূপা অনুভব করলো যে সে অনির প্রেমে পড়েছে। অনির তখন যৌবনের শুরু। অনি দেখতে বেশ সুর্দশন। একবার যে দেখবে সেই প্রেমে পড়বে। আর তাছাড়া রূপা তো জানেই অনিই হবে তার বর।

রূপা যখন অনিকে বর ভাবছে , অনিকে নিয়ে মনে মনে সংসার সাজাতে শুরু করেছে ঠিক তখনই ঘটে গেলো সেই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। একটা খবর যা অনির জন্য সুসংবাদ আর রূপার জন্য দুঃসংবাদ।  অনির বিয়ে ঠিক হয়ে গেছে। দুদিন পরেই বিয়ের দিন ধার্য হয়েছে।

এই একটা খবর কালবৈশাখী ঝড়ের মতো তছনছ করে দিয়েছিল অনিকে নিয়ে মনে মনে সাজানো রূপার সংসার।  তীব্র বজ্রপাতের আঘাতে যেমন ধ্বংস হয়ে যায় কোনো স্বপ্নীল সুখের ভবন ঠিক তেমনি ভাবে খান খান হয়ে গিয়েছিল রূপার হৃদয়। হীরা যেমন করে কেটে টুকরো টুকরো করে কাঁচ এই খবরটাও তেমনি করে টুকরো টুকরো করেছিল রূপার মন নামক বস্তুটি।  ছোট্ট রূপার মানসিক অবস্থা কেমন হয়েছিল তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

 

ছোট্ট বেলায় মস্তিষ্কে গেঁথে যাওয়া শব্দ(অনির বউ)_১

২৮৫জন ১৬৩জন
0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য