চিঠি (৮)

সুলতানা সোনিয়া ২৬ অক্টোবর ২০১৩, শনিবার, ০৩:৩৩:০৫অপরাহ্ন বিবিধ ১৯ মন্তব্য

তোমাকেই বলছি ~

বিশেষ করে মন খারাপের দিনগুলোয় তোমাকে একবার দেখার জন্য ছটফট করতাম খুব। চুপচাপ বেড়িয়ে পড়তাম। ঘণ্টার পর ঘণ্টা নিশব্দে দাঁড়িয়ে থাকতাম তোমার বাসার বারান্দার সামনে ~ যদি তুমি একবার চায়ের কাপে চুমু দিতে দিতে এসে দারাও ওই খোলা বারান্দায় ~ খোলা মাঠ, স্বচ্ছ পুকুর, ভিজে যাওয়া গাছের শরীর সব আমাকে নিয়ে উপহাস করতো ~ বলতো এই মেয়ে তুমি ভালোবাসা চেনো ? আমি বলতাম , এই যে পাগলামি ? এই যে তোমাকে দেখার আকুলতা ~ এর নাম কি ভালোবাসা নয় ?

কতো যে ছটফটানি ছিলো বুকের ভেতরটায় । অথচ আমি আজো আমার একাকিত্বের সময়গুলোতে তোমার বাড়ির সড়কটি ধরেই হেঁটে যাই, কল্পনায~~ একা। হেঁটে যাই… আর ভাবি- আমার পাশে তুমি তো থাকতেই পারতে !

শুনেছি তুমিও নাকি আমারই মতো নিঃসঙ্গ, নির্জনতাপ্রিয়, একাই কাটিয়ে দিচ্ছ জীবন ? কেন এমন করলে জানতে চাইবোনা ~পথ মানেই পথ পেরুবার ইচ্ছে থাকে।আমার কেন জানি পথের প্রতি আর টান নেই , আর বাড়ী ফেরার তাড়াও নেই। দেরী হলেও কেউ শাসন করে জানতে চায়না কেন এতো রাত করে ফিরলে ? এখন আর চোখে কাজল টেনে বসে থাকার ও ইচ্ছা জাগেনা মনে । আমি তো জেনে গেছি কেউ আর আসবেনা বলতে ” আজ তোমাকে বেশ লাগছে ”

আজকাল বড্ড মাথা যন্ত্রণায় ভুগি ~ কি যে ভীষণ মিস করি তোমায় তখন! মনে আছে তোমার একদিন ঝরের রাতে আমার অসুস্থ হবার কথা শুনে নৌকা ছাড়াই কলা ভেলা ভাসিয়ে এপারে এসেছিলে~ আমি জেনে গেছি , খুব জেনে গেছি যা গেছে তা আর ফিরে আসবেনা ~আমার জন্য তুমি আর অপেক্ষা করেও থাকোনা , আমি ও যে খুব থাকি তাও বলবো না , আসলে এভাবেই অভ্যস্ত হয়ে গেছি আমি ~ এই জীবন টা ক্যামন যেন~সলতে নেই, আলো নেই, বিছানায় একটা মাত্র বালিশ। সেখানে গল্প নেই।

তবুও হেঁটে চলি । গন্তব্য হীন ~ মেঠোপথ জুড়ে তীব্র কাঁটা। তবুও থামিনা। মাঝে মাঝে ভাবি কেউ কি আমায় আমার মতো করে ভাবছে ? বুকের ভেতর কোথাও হঠাৎ মনে হয়, কেউ কি সত্যি নেই? সত্যি চেয়ে নেই? নাকি আছে আমার সবটা জুড়ে ~

তোমার চশমার ফ্রেম টা একটু দাও তো ~ আচল দিয়ে গ্লাস টা মুছে দেই । জানি আমার চিঠি পরলেই তোমার চোখে জল আসে । ভিতরে ভিতরে তুমি কাঁদো ~ খুব কাঁদো ~ আর আমি নিঃশেষ হতে থাকি তোমাকে না পাওয়ার বেদনায় ~

২৩৪জন ২৩৪জন
0 Shares

১৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য