ঘাস উইথ ঘাসফড়িং চড়চড়ি

রুমন আশরাফ ৩ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ০২:০৯:২৫পূর্বাহ্ন রম্য ১৬ মন্তব্য

আসুন একটু মজা করি।

 

দিনদিন শাক-সবজির দাম যে হারে বাড়ছে তাতে হয়তো যেকোনো সময়ে নতুন একটি শ্লোগানের উদ্ভব হবে। হতে পারে এমন, “বেশী করে ঘাস খান, শাক-সবজির উপর চাপ কমান”। আচ্ছা ধরুন শ্লোগানটি প্রকাশ হল এবং চারদিকে ধুমসে প্রচার হতে থাকল। আপনি হয়তো সোফায় বসে টিভি চালু করেছেন, অমনি দেখা গেল টিভিতে শ্লোগানটি প্রচার হচ্ছে। চ্যানেল পরিবর্তন করলেন, দেখা গেলো সেখানেও একই শ্লোগান। আমজনতাকে ঘাস খাওয়ানোর ব্যাপারে এমন প্রচারণা দেখে আপনি বেশ ক্লান্ত ও বিরক্ত। কিন্তু উপায় নেই। শাকসবজির দাম তো নাগালের বাইরে। অগত্যা সিদ্ধান্ত নিলেন শাকসবজির বদলে ঘাস খাওয়ার।

 

এদিকে বাজারে হরেক রকমের ঘাসের উপস্থিতি। আপনি গেলেন বাজারে ঘাস কিনতে। বিভিন্ন ধরণের ঘাস নিয়ে বসে আছে বিক্রেতারা। পারা ঘাস, নেপিয়ার ঘাস, দূর্বাঘাস, জাম্বু ঘাস ইত্যাদি। একেক ঘাসের দাম একেক রকম। কোনও কোনও ঘাসের প্রতি আটি হয়তো দুই টাকা আবার কোনও কোনও আটি তিন/চার টাকা। তবে সেখানেও দাম নিয়ে মুলামুলি হতে পারে। দুই টাকার জায়গায় হয়তো আড়াই টাকা চাইবে তবুও দামটি থাকবে হাতের লাগালের মধ্যেই।

 

এবার বাজার থেকে বেশ স্বস্তি নিয়ে বাসায় ফিরলেন। থলে ভর্তি টাটকা সবুজ ঘাস। ক্রয়ক্ষমতার মধ্যেই আছে ঘাসের দাম। শাকসবজি এখন থেকে বাদ।

 

অতঃপর চা এর পেয়ালা হাতে নিয়ে ফুরফুরে মেজাজে টিভি চালু করলেন আপনি। চালু করতেই দেখলেন রান্না বান্নার অনুষ্ঠান। ঘাসের একটি নতুন রেসিপি নিয়ে কেকাপ্পা আলোচনা করছেন। “হ্যালো দর্শক, এখন আমি আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি নতুন এক রেসিপি নিয়ে। আজকের রেসিপির নাম হচ্ছে, ঘাস উইথ ঘাসফড়িং চড়চড়ি”। আপনি চক্ষুদ্বয় বড়বড় করে তাকিয়ে আছেন টিভি স্ক্রিনে। পেঁয়াজ ছাড়াই কিভাবে এই স্পেশাল মেন্যুটি রান্না করা যায় তা মনোযোগ দিয়ে দেখছেন আর কেকাপ্পার কথা শুনছেন………………

১৬২জন ২৪জন
9 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য