গোলাপ কাহিনীঃ

তৌহিদ ৩ মার্চ ২০১৯, রবিবার, ১১:৪১:১১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, ছবিব্লগ, বিবিধ ২৮ মন্তব্য

আমি গোটা শহরের সমস্ত ফুলের বাগান তন্নতন্ন করে খুঁজেও তোমার জন্য একটা লাল গোলাপ না পেয়ে সেদিন সাদা গোলাপ এনেছিলাম; অথচ তুমি অভিমান করে সে গোলাপ ছুঁড়ে ফেলেছিলে। বলেছিলে একটা লাল গোলাপ তুমি আনতে পারলেনা!

তুমি কি জানো, তোমার লাল গোলাপের জন্য আমাকে সেদিন তপ্ত রোদে পুড়ে শহরের অলিগলি’র সব দোকান চষে ফেলতে হয়েছিলো? তবু আমি একটাও লাল গোলাপ খুঁজে পাইনি।

সেদিন পিয়ালদের বাড়ির একতলার বারান্দা থেকে তোমার জন্যে একটা লাল গোলাপ চুরি করতে গিয়ে পা পিছলে আমার ডান হাতে আর গালে আঁচড় লেগেছিলো; আমি খুঁড়িয়ে হাটছিলাম। তবুও একটা লাল গোলাপ সেই সময় আমায় ধরা দেয়নি সেদিন।

শহরের সব ফুলের বাগান লাল গোলাপ শুন্য দেখে সরকারি ডাকবাংলোতেও গিয়েছিলাম আমি ; কিন্তু বাগানের মালি মালেক চাচাও সেদিন আমাকে নিরাশ করে হাতে একটা সাদা গোলাপ ধরিয়ে দিয়ে বলেছিলো- বাবারে আজ লাল গোলাপের বড়ই অভাব।

কি হয়েছিলো সেদিন? লাল গোলাপশুন্য ছিলো কেন গোটা শহর? এই শহরে সেদিন নাকি মর্ত্য থেকে নেমে এসেছিলো এক ডানাকাটা পরী! সবাই তাকে একনজর দেখার জন্য ভীর জমিয়েছিলো সে জলসাঘরে আর প্রত্যকের হাতে ছিলো একটা করে লাল গোলাপ।

অথচ শারাব আর শাবাবের লোভকে জলাঞ্জলি দিয়ে সেদিন মালির দেয়া সেই সাদা গোলাপটিই আমি নিয়ে এসেছিলাম তোমার জন্যে। সে কথা জানতে না চেয়ে তুমি মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলে অভিমানে।

তোমার ছুঁড়েফেলা সেদিনের সেই সাদা গোলাপটিকে আমি মাটি থেকে তুলে এনে ঘরের কোনে একগ্লাস পানিতে সজতনে রেখেছিলাম। আজ ঘুম থেকে উঠে দেখি সাদা পাপড়িগুলো লাল হয়ে আছে। এটাকি আমার চোখের ভ্রম? নাকি অন্যকিছু! কি সেটা?

হয়তো হৃদয়ের রক্তক্ষরণে রক্তের ফোঁটাগুলি দিয়ে – একটি সাদা গোলাপ লাল করার অপচেষ্টায় আমি লিপ্ত।

(রোজ ডে উপলক্ষে ২০১৪ সালের লেখা এটি, ডাইরি ঘাটতে গিয়ে পেলাম। ছবিঃ সংগৃহীত)

৭২২জন ৪৫০জন
11 Shares

২৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য