গবেষণাগার ও লাভবান খামারী

নাজমুল হুদা ৯ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার, ০৭:৩০:৪৩অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য

হালকা ঠাণ্ডার দেশে যখন জেগে উঠি
অভাবসিক্ত গবেষণার কেন্দ্রগুলো ইশারায়
ডাকে- ছত্র ছায়ায় লালিত কতগুলি অপুষ্টিজনিত অভাব।

যে অভাব কারো উঠোন হাসানোর কথা
লিঙ্গ চিহ্ন দোলনায় চিত করে হাত বুলাতে
বলে- মানবতার সন্ধানী কী রিসার্চ করবি?
ওরা আধা আলোতে ভুলের বয়ঃসন্ধিকাল ফেলে গেছে।

স্কুলের গণ্ডিতে কোষ্ঠকাঠিন্যে ভোগা যে অভাব
মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকে নিষিদ্ধ শব্দের প্ল্যাকার্ডে
দাঁড়িয়ে থাকে- যতক্ষণ ধর্মালয়ে ব্যথার চিৎকার না জমে।

পথে সারি সারি এক ঝাঁক আহত বিবেক
ডানা ভাঙ্গা পাখির মতো এগিয়ে যেতে যেতে
গবেষণাসিদ্ধ ডিএনের ধারালো শব্দের ময়নাতদন্ত
প্রস্তুতি সম্পন্ন করে- কবে মিটবে লজ্জিত অভাবের দাবি?

যে আমার সহধর্মিণী-
সনাতন পদ্ধতিতে দেহ গুনে অগোচরে লাভবান খামারী;

অতঃপর–
সেই নৈতিকতার আদি গবেষণাগার খসে খসে পড়ে
স্যাঁতস্যাঁতে রক্তে- লাল সবুজের পাকস্থলী প্রসব করে
বিচারহীনতার অপুষ্টিতে ভোগা একেকটি নাদুসনুদুস অপরাধ।

নেত্রকোনা, ময়মনসিংহ

১৪৯জন ৩৭জন
28 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য