গন্তব্যের শূণ্যতায় পূর্ণতা

নীলাঞ্জনা নীলা ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৩, সোমবার, ০২:২৭:০৭পূর্বাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য

অবস্থানের চূড়ান্ত সীমায় দাঁড়িয়ে দেখা যায় ,
এখনোও অতলেই পড়ে আছে ।
এ কি গন্তব্য , নাকি পথ চলা !
শুরু নাকি শেষ !

আচ্ছা ভোরের যাত্রায় চোখে দুপুর লাগে কেন ?
ওখানে তো ঘুম ঘুম স্বপ্ন থাকার কথা !
স্বপ্ন-ঘুমে কারুর কাছে কি তপ্তবেলা আসে ?
অবাক হতে হয় ,
যতোটুকু সময় দী্র্ঘ হচ্ছে ,
ততোই যেনো সারাটি মুখ জুড়ে ছোট ছোট ব্রণ ।
কুৎসিত রূপ মেনে নেয়া যায়—
কিন্তু বড়ো ভয়ঙ্কর মুখের দিকে চোখ রাখার মতো শাস্তি আর কিছুতে নেই

থেমে থেমে কোথায় যাচ্ছে আধবেলার জীবন !
কোন মরিচীকার পেছনে ছুটে চলছে !
নির্লজ্জ্বের মতো সকাল-দুপুর কাটিয়ে দিয়ে ,
অস্তাচলের একটু আগের গোধূলীকে জড়িয়ে গন্তব্য কি পেয়ে গেলো পাখী ?
নাকি শূণ্যতার কাছেই আবার ডানা মেলা ?
সেটা জানে পাখীর আগামী ভোর ।

**জীবনের অনেক গভীর থেকে কথাগুলো উঠে এসেছে । সেই যে আমাদের জন্ম হলো , এক অন্ধকার (মায়ের গর্ভ তো অন্ধকার) থেকে আরেক অন্ধকারের পথে ছুটে চলছি আমরা…এরই মধ্যে কতো পাওয়া , কতো হারানো , কতো স্বপ্ন , কতো স্বপ্ন-ভঙ্গ ! আসলেই কি আমাদের কোনো নির্দিষ্ট গন্তব্য আছে ? থেমে যাওয়া মানে যদি গন্তব্য হয় , তাহলে মৃত্যু কি একরকম গন্তব্য ? মনে হয়না…কারণ আমরা সবাই পরের ভোরের অপেক্ষায় থাকি , বেঁচে থাকাটাই আমাদের একমাত্র গন্তব্য…**

হ্যামিল্টন , কানাডা
৭ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ ইং ।

২০২জন ২০২জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য