এখন দিব্যি বেঁচে আছি তোকে ছাড়া ।
অথচ এমন করে কি থাকার কথা ছিলো ?
তোর ভালোবাসা ছাড়া আমি কি করে বাঁচি বল ?
তোকে ছাড়া কি দুঃসহ জীবন আমি কাটাচ্ছি তা কি তুই জানিস ?
ইচ্ছা করে পরম মমতায় তোর চুল আঁচরে দেই !!

তুই যেদিন আমাকে ফেলে চলে গেলি ! মনে আছে তোর ?
কি ভীষণ রকম কেঁদে ছিলাম আমি ।
পাগলের মতো চিৎকার করে কেঁদেছি ।
এখনো উড়োজাহাজের শব্দ শুনে দৌড়ে বারান্দায় গিয়ে দাড়াই ।
আকাশের দিকে তাকিয়ে ভাবি এই বুঝি তুই ফিরে এলি ?
তুই চলে যাবার পর থেকে ক্যামন যেন আনমনা হয়ে থাকি ।
লুকিয়ে লুকিয়ে কাঁদি !
বুকের মাঝে শুধু হাহাকারের ঝড় !
মাঝে মাঝে সারারাত ঘুমুতে পারিনা ।
এপাশ ওপাশ করি । ভাবনা গুলো জট পাকিয়ে যায় ।
ভাবনা গুলোকে খুলে খুলে আলাদা করি
খা খা বুকটা নিয়ে কবিতা লিখতে থাকি ! এলোমেলো কবিতা ।
এলোমেলো ঘরদোর ! বিছানা বালিশ বই গুলো সব এলোমেলো !
টেবিলের উপরে ধুলোর আবরন !!
তুই চলে যাবার পর থেকে….
এক বীভৎস রকম শূন্যতা আমাকে ঘিরে থাকে !
মাঝে মাঝে ভাবি এই শূন্যতা কি আমার সাথে কবর অবধি যাবে ?
মাঝে মাঝে তোর স্পর্শ পেতে আকুল হই ।
এ্যালবামে রাখা তোর ছবি গুলোকে স্পর্শ করি ।
আমার দীর্ঘশ্বাস , আর্তনাদ ঘরের চার দেয়ালের ভীতর ধাক্কা খেয়ে
আবার আমার কাছেই ফিরে আসে ।
আমার চোখের জল নদী হয়ে বিছানার উপরে ছড়িয়ে থাকা,

তোর ছবি গুলোকে ভিজিয়ে দেয় ! ভাসিয়ে দেয় !

এখন বড় একা হয়ে গেছিরে আমি !
তুই যদি কোনোদিন ফিরে আসিস !
এই অপেক্ষায় কাটিয়ে দেই সকাল , দুপুর , সন্ধ্যা বেলা !

 

৩০২জন ৩০২জন
0 Shares

৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য