খুনে কবিতা, কবিতার খুন

ছাইরাছ হেলাল ১৩ এপ্রিল ২০১৯, শনিবার, ০৯:৪৫:৪৯পূর্বাহ্ন রম্য ২৫ মন্তব্য

 

হুট-হাট চেনা/অচেনা অগ্রবর্তী বিষুদবার, কবি এখন/তখন তুমুল/বিপুল সমুদ্র স্নানে, সমুদ্রে স্নানে, কবিতাকে বগলের ব্যাগে পুড়ে; বগলে চেপে; পক্ষকালে, মাসে মাসে, সপ্তাহে-সপ্তাহে সপ্তাহান্তে, কবিতার সাথে ভাও এবার হবেই। হতেই হবে। একদম যে হয় না, তা কিন্তু না, হয় হয়, খুব হয়, খুউব গোপনে। চমক বিদ্যুতের মত মুহূর্তের চিলিক/ঝিলিকেই মিলিয়ে যায়।

কবি ছুটে চলেন মনের আনন্দে, আনন্দের দাবদাহে, হাঁটু-জল থেকে বুক জলে, কখন-ও ডুব সাঁতারে ভয়-দিয়ে/ভয়-নিয়ে, যদি-বা কবিতা লেগে যায় শরীরী-স্পর্শকাতরতায় জলৌকার বেশে!! কখন-ও ছুটতে থাকে ঝানু তীরন্দাজের নিশানা-বাজিতে। লোনা-জল-তোড়ে কবিতা ছটে পালিয়ে যায়, দূরে ভেসে ওঠে, টিটকারি/টিসকারী দেয়/মারে।
আহা কবি!! আহা কবির কবিতা!!

টাক-চুল বেয়ে ফোটা ফোটা সমুদ্দুর জল নেমে আসে খুব ধীর লয়ে, কবি ভাবে এই তো কবিতা, তবে ধরা যাক দু’য়েকটা, আবার ভিজে আসে, ভিজিয়ে আসে, সেলফি-স্টিক গুটিয়ে রেখে আকাশে বুক-মুখ রেখে কবি চিৎ হয়ে শুয়ে থাকে, চুন মুখে, ক্ষুধিত প্রাণের মনে, ক্ষুধা পেটে!! হারামি কবিতা উঁক্কিঝুঁক্কি দেয়, মজা লয়, দেয় না। কবিতা উচ্ছন্নে যাক, কবি মুক্তি পাক।

হঠাৎ বালুকা বেলায়, কবি কুড়িয়ে পায় এক নিস্তেজ বিষণ্ণ হাইড্রা, কবিতার মায়ায়/ছায়ায় বুকে জড়িয়ে নেয় কবিতা ভেবে!! কবিতা সে লিখবেই। একদিন সে ঠিকই মিনি ম্যারাথনে মহাকাব্য এই সোনা-সোনেলাকেই উৎসর্গ করবে, কবি সে হবেই। নিশ্চিত সে (কবিতা) একদিন বেজায় খুন হবে কবির মিষ্টি-প্রাণ-হৃদয়-হাতে, আমরাও অপেক্ষায় একটি সফল/সার্থক পূর্বজন্মের, একটি টকটকে-টসটসে নাদুস- নুদুস মিষ্টি কবিতার জন্য।

বিশ্বাস করুন,
কবিতার হাতে খুন হতে ইচ্ছে করে, বিদ্ধ হতে ভোঁতা তীরে বা হেমলকে।
কবিতা ফিরে এসো খুনির বেশে, তাও।

৪১৯জন ২০৭জন
25 Shares

২৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য