১.
তারে ভালোবাসতাম আমি
সে কি মোরে বাসিত ?
ভালো যদি না-ই বাসিত
দেখলে কেন হাসিত ?

কইনি কথা তাহার সনে
লাজ শরমের ভয়ে,
প্রেমের কাঁটার আঘাত একা
যাচ্ছি আমিই সয়ে।

হঠাৎ করেই সাজলো বধু
হৃদয় ভেঙ্গে দিয়ে,
চোখের সামনেই চলে গেলো
সবই কেড়ে নিয়ে।

২.
আমায় শুধু বাসতো ভালো
আমি কি আর বাসি ?
না বাসিলেও চাইতো সে
হতে চরণ দাসী।

আমি যতই দূরে থাকি
সে আসতো কাছে,
মই নিয়ে চায় পালিয়ে যেতে
আমায় তুলে গাছে!

ভালোবাসা কি আর হয়
মন যদি না মিলে ?
তাইতো আমি ইচ্ছে করেই
দূরে গেলাম চলে।

৩.
সে আমারে বাসতো ভালো
আমিও তারে বাসি,
যেদিক তাকাই ভালোবাসা
দেখি রাশি রাশি।

শপথ করি দুজন মিলে
আসুক যতই ঝড়,
দরকার হলে উল্টো স্রোতে
বাঁধবো সুখের ঘর।

হঠাৎ করেই হারিয়ে গেলো
স্মৃতি পড়ে থাকে,
আমি এখন একা হাঁটি
প্রেম যমুনার বাঁকে।

৪.
আমি তাহার প্রেমে পাগল
সেও পাগল মোর,
প্রেমের টানে ঘর বেঁধেছি
পালিয়ে বাড়ি ঘর।

ধীরে ধীরে উল্টা বাতাস
বইতে থাকে মনে,
দিনের বেলা পালিয়ে থাকি
রই’না তাহার সনে।

হয়না এখন মতের মিলন
যে যার মতো চলে,
দু’জন এখন দুই বিছানায়
একই ছাদের তলে।

জবরুল আলম সুমন
সিলেট।
১৯শে নভেম্বর ২০১১ খৃষ্টাব্দ।

২৮১জন ২৮১জন
0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য