ক্ষমাপ্রার্থী

নীলকন্ঠ জয় ২৬ অক্টোবর ২০১৩, শনিবার, ০৮:৪৩:১৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, বিবিধ ১৭ মন্তব্য

গত কয়েকদিন যাবৎ মানসিক অস্থিরতা এবং ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে নিয়মিত হতে পারছি না ব্লগ এবং ফেইসবুকে। এমনকি বন্ধুদের আড্ডাতেও না। এ জন্য সকলের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী । পৃথিবীতে মানুষের কাছে এমনকি নিজের আপনজনের কাছেও মাঝে মাঝে নিজেকে খুব ছোট মনে হয়। মাঝে মাঝে মনে হয় আমি এই পৃথিবীর জন্য একটা বোঝা।

মানুষের সব স্বপ্ন কখনই পূর্ণ হয়না। কিন্তু কিছু অপূর্ণ স্বপ্ন মানুষকে অনেক কষ্ট দেয়। বিধাতা আমাকে যা চেয়েছি সব দিয়েছেন তাই নতুন করে তার কাছে হাত পাততে চাই না। আমার অক্ষমতার দায়ভার আমাকেই নিতে হবে।

গত কয়েকদিনে আমার ভেতরে অনেক খানি পরিবর্তন এসেছে তাতে আমি নিজেই অবাক। আগে দিনরাত বাচ্চাদের মত মনটা উদ্বেল থাকত। আর এখন মনে হয় আমার উপর দ্বায়িত্ব এসে পড়েছে, আমার পরিবর্তনের সময় এসেছে। জীবনের রঙ বদলের এটাই উপযুক্ত সময়।

সব কথা হয়তো বলা সম্ভব নয় তাই বলতে পারলাম না। গুমরে মরা কিছু কষ্ট না বলাই থেকে যায়। সবাই আমাকে ক্ষমা করবেন। সকলের কাছে আশীর্বাদ প্রার্থী আমি যেন স্বাভাবিক আমি আবারো নিয়মিত হতে পারি শিঘ্রই।

**পাহাড় চূড়ায়**

অনেকদিন থেকে আমার একটা পাহাড় কেনার সখ
কিন্তু পাহাড় কে বিক্রি করে তা জানিনা
যদি তার দেখা পেতাম দামের জন্য আটকাতো না
আমার নিজস্ব একটা নদী আছে…সেটা দিয়ে দিতাম পাহাড়টার বদলে
কে না জানে…পাহাড়ের চেয়ে নদীর দামই বেশী
পাহাড় স্থানু, নদী বহমান…তবু আমি নদীর বদলে পাহাড়টাই কিনতাম
কারন আমি ঠকতে চাই…নদীটাও অবশ্য কিনেছিলাম একটা দ্বীপের বদলে
ছেলেবেলায় আমার বেশ ছোট্ট খাট্ট ছিমছাম একটা দ্বীপ ছিল
সেখানে অসংখ্য প্রজাপতি…শৈশবে দ্বীপ’টি ছিল বড় প্রিয়
আমার যৌবনে দ্বীপটি আমার কাছে মাপে ছোট লাগল
প্রবহমান ছিপছিপে তন্বি নদীটি বেশ পছন্দ হল আমার
বন্ধুরা বলল…ওইটুকু একটা দ্বিপের বিনিময়ে এতবড় একটা নদী পেয়েছিস ?
খুব জিতেছিস তো মাইরি…তখন জয়ের আনন্দে আমি বিহ্বল হতাম…
তখন সত্যিই আমি ভালবাসতাম নদিটিকেনদী আমার অনেক প্রস্নের উত্তর দিত…যেমন…বলতো আজ সন্ধ্যেবেলায়বৃষ্টিহবেকিনা?
সে বলত… আজ এখানে দখিন গরম হাওয়া শুধু একটি ছোট্ট দ্বীপে বৃষ্টি
সেকি প্রবল বৃষ্টি যেন একটা উতসব…আমি সেই দ্বীপে আর যেতে পারিনা
সে জানত…সবাই জানে শৈশবে আর ফেরা যায়না
এখন আমি একটা পাহাড় কিনতে চাই সেই পাহাড়ের পায়ের কাছে থাকবে গহন অরন্য
আমি সেই অরন্য পার হয়ে যাবো…তারপর? তারপর শুধু রুক্ষ কঠিন পাহাড়
একেবারে চুড়ায় …মাথার খূব কাছেই আকাশ… নিচে বিপুলা পৃথিবী
চরাচরে তীব্র নির্জনতা… আমার কন্ঠস্বর সেখানে কেউ শুনতে পাবেনা
আমি ইশ্বর মানিনা…তিনি আমার মাথার কাছে ঝুকে দাড়াবেন না
আমি শুধু দশ দিককে উদ্দেশ্য করে বলবো…প্রত্যেক মানুষই অহংকারী
এখানে আমি একা…এখানে আমার কোন অহংকার নেই
এখানে জয়ী হবার বদলে ক্ষমা চাইতেই ভাল লাগে
হে দশ দিক…আমি কোন দোষ করিনি
আমাকে ক্ষমা কর ক্ষমা কর ক্ষমা কর…

(সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়)

সকলের প্রতি রইলো নিরন্তর শুভেচ্ছা।

৪৯০জন ৪৯০জন
0 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ