লেখকরা বড্ড বেশি তরুণ হয়,তাই না?আমার ৬ টি প্রকাশনার প্রত্যেকটিতে আপুর মন্তব্য থাকত।আপুুুুকে এভাবে চিনেছি।

মন্তব্য করতে আসাতে আপুকে নিয়ে একটু জানতে চাওয়া কাজ করেছে মনে।দেখলাম সোনেলা ব্লগ আর লেখা তার মধ্যে মিশে গেছে।উনি ছোট্ট স্বাভাবিক অনুভূতিতে প্রাণ দিতে পারত।উনার লেখার বর্ণনা মন ছুয়েঁ যেত।

মনটা কাদঁছে। চোখ বেয়ে জল আসছে।মানুষটাকে লেখা দিয়ে চিনি।মানুষটার কর্ম জায়গা করে নিয়েছে;হোক না সেটা স্বল্প পরিসরে।কোথায় তার দেশ জানি না!কাজের প্রতি,শখের প্রতি এতো নিবিড়তা আমার মনেও নাড়া দিয়েছে।

আমার কোন লেখায় আপুর মন্তব্য থাকবে না!আমাকে ইনবক্স করে আর নির্দেশনা দিবে না!

শেষবার আপু ইতস্তত বোধ করছিল আমাকে কিছু বলতে।আপুকে বলেছিলাম,”দয়া করে আমার ভুলগুলো আমাকে নিঃসুকোচে বলবেন।আমি সংশোধন করে নিব।”আপু তারপর নির্দেশনা দিয়ে চলে যান।আরো কিছুক্ষণ আলাপ করার ইচ্ছা ছিল।বলা হল না।

আল্লাহ আপনাকে বেহশতে নসিব করুক।আপনার রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।অনেক ভাল থাকবেন।আপনাকে স্মরণ করে রাখতে আমার এ ছোট্ট লেখা।অনেক ভাল থাকবেন।

১৮৯জন ২৩জন
0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য