কেউ কিছু ভাবেনি…

আর্বনীল ২৯ এপ্রিল ২০১৪, মঙ্গলবার, ০৯:৪৪:৫৫পূর্বাহ্ন কবিতা, রম্য ১০ মন্তব্য

কেউ কোলবালিশের পরিবর্তে অন্য কিছুর কথা ভাবেনি।
৩৩ বছর কাটল। কেউ কিছু ভাবেনি।

ছেলেবেলায় এক দুষ্টমেয়ে কান্না থামিয়ে দিয়ে বলেছিল,

তোমার ১৬তম জন্মদিনে এসে কোলবালিশটা বদলে দিয়ে যাব।

তারপর কত জন্মদিন চলে গেল। সেই দুষ্টমেয়ে আর এল না।

২৫ বছর প্রতিক্ষায় আছি।

 

মামা বাড়ির মাঝি নাদের আলি বলেছিল, বড় হও দাদাঠাকুর!

তোমাকে আমি শহরের ঐ বৌ-বাজারে নিয়ে যাব।

যেখানে কোলবালিশের মতই জ্যান্ত বৌয়েরা ঘুরে বেড়ায়।
নাদের আলি, আমি আর কতো বড় হব?

আর কত রাত কোলবালিশের সাথে কাটাইয়া দিলে

তুমি আমায় শহরের ঐ বৌ-বাজারে নিয়ে যাবে?

 

একটাও পোলাপান জন্মাতে পারিনি এখনো

সুন্দরী বউ দেখিয়ে দেখিয়ে হেটেছে লস্কর বাড়ির ছেলেরা।

ভিখারীর মত চৌধুরীদের গেটে দাঁড়িয়ে দেখেছি

ভেতরে ছোট্ট ছোট্ট বাচ্চা-কাচ্চাদের আনন্দ উৎসব।

এই উৎসবে সুন্দরী রমনীরা কত রকম আমোদে যে হেসেছে।

আমার দিকে তারা ফিরেও তাকায়নি।

 

বাবা আমার কাধ ছুয়ে বলেছিলেন, দেখিস একদিন তোরও...

বাবা এখন অন্ধ! আমার দেখা হয়নি কিছুই।

কোলবালিশের পরিবর্তে সেই সুন্দরী বউ।

না দু-চারটা পোলাপান।

 

কেউ কিছু ভাবেনি।

৩৩ বছর কাটল। কেউ কিছু ভাবে না।

 

:p :p 😛 :p :p :p :p :p :p :p

 

*** প্রয়াত সুনিল দাদা'র 'কেউ কথা রাখেনি' কবিতাটা আমার খুব পছন্দের। কি ভেবে যে এটার এই অবস্থা করে ফেলেছি। ভগবানই জানে।

যাইহোক, সুনিল দাদা নিশ্চয় ওপার থেকে আমার অপরাধ ক্ষমা করে দিয়েছেন।  😀

 

#৯

0 Shares

১০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ