কুসংস্কারাচ্ছন্ন শালিক

সুপর্ণা ফাল্গুনী ১৬ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১২:০০:৩৮পূর্বাহ্ন কবিতা ৩০ মন্তব্য

বারান্দায় খাবারের দানা দেখে,কোথা থেকে যেন চারটি শালিক এসেছে।
পরম যত্নে খুটে খুটে দানাগুলো খাচ্ছে,
আমি আড়ালে দাঁড়িয়ে বিমুগ্ধ নয়নে তাকিয়ে দেখছি।
শালিকগুলো নিজেদের মধ্যে খুনসুটি করছে ,
ছুটোছুটি করছে।
আড়চোখে এদিক-ওদিক দেখছে যদি কেউ এসে তাড়িয়ে দেয় এইভেবে কিছুটা শঙ্কিত।
খাওয়া শেষে গাছের ডালে বসলো দুটো শালিক পাশাপাশি,
আর দুটো জানি কোথায় হারিয়ে গেল;
আচ্ছা ওরা দুজন কি কপোত-কপোতী নাকি বর-বৌ?
খুব জানতে ইচ্ছে করছে।
কি সুন্দর একজন আরেকজনের শরীরে ঠোকাঠুকি করছে।  
শুনেছি চার শালিক দেখলে প্রিয়জন কাছে আসে, কৈ আজো তো এলো না কেউ!
ভালোবাসার খুনসুটি নিয়ে কাছে বসলো না।

তিন শালিক দেখলে কারো না কারো চিঠি আসে –
কৈ কারো চিঠিতো এলোনা, এলোনা বায়বীয় কোনো বার্তা।
অপেক্ষার প্রহর কি আদৌ শেষ হবে কভু?
ভালোবাসার বার্তা না-হোক, বন্ধুত্বের বার্তা, আপনজনের বার্তা।
এখন তো খামে-মোড়ানো, ডাকটিকেট লাগানো
কালো,নীল অক্ষরে কোনো ভরাট কাগজ আসে না।
দুটো শালিক দেখলে নাকি আনন্দ, দরজা-জানালা সবদিক দিয়েই আসে;
কৈ আমার তো আনন্দ-বার্তা আসে না কোনো!
আনন্দ জানি কোথায়, কার দ্বারে টোকা দিচ্ছে অনবরত?
এক শালিক দেখলে নাকি দুঃখ আসে, সে আর আসবে কি !
সেতো কাঁঠালের আঠার মতো লেগেই আছে আমার জীবনে।
তবুও কিসের এই অপেক্ষা, কেন অবচেতন মনে এসব প্রচলিত কথার ভরসায়-
ব্যর্থ পথচেয়ে থাকা মিথ্যে সান্ত্বনায়?

৩৪১জন ৯৭জন
0 Shares

৩০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য