কেন যে ইংরেজরা ঢাকার বানান Dacca লিখেছিলো কে জানে। Dhacca লিখলেও বুঝতাম কোন গন্যমান্য ইংরেজকে ধাক্কা দেয়ায় বানান হয়েছিল Dhacca. কিন্তু Dacca কেন বানান? অবশেষে এই বানান সংশোধিত হয়ে Dhaka হলো।

কলকাতার পূর্বের বানান ছিলো Calcutta. এর উচ্চারন হওয়া উচিৎ ছিল চালচুট্টা বা কালকুট্টা। মানে কি? বদের হাড্ডি ইংরেজরা কি কালো+কুত্তা > কালকুট্টা উচ্চারন করত কলকাতাকে? কি ছিলো সভ্যতার মোড়কে জড়ানো অসভ্য ইংরেজদের মনে? অবশেষে সঠিক উচ্চারনে সংশোধিত হলো এর ইংলিশ বানান kolkata.

ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তা djakarta। এখানে D আসলো কেন?

এমনি অনেক স্থানের নাম আছে যার উচ্চারন আর ইংরেজী বানান আলাদা। আজ কিছু শব্দ নিয়ে আসলাম এখানে যার বানান সংশোধন হওয়া উচিৎ।

School কেন বাবা সহজ বানান তো Skul হলেই হয়
Park > পার্ক, Bird > বার্ড। এরা মৃতসঞ্জীবনী সুরা খেয়ে এই ওলট পালট করেছে। ঐ মাতালদের কাছে প্রশ্ন করাই যায়, Bird > বার্ড হলে Pirk > পার্ক কেন হবেনা? park এর মত Bard লিখলে কেউ কি ইংরেজদের মাথা ফাটিয়ে দিতো?

আমাদের কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বানিয়ে দিলো ওরা Tagore !! হিংসিত ইংরেজ জাতি বাংলাকে ছোট করার জন্যই এমন টা করেছে বলে আমার মনে হয়। আমাদের দেশে কোন কোন অঞ্চলে চোখের সমস্যাক্রান্ত মানুষকে ট্যাগরা বলে উপহাস করা হয়।বেনিয়া ইংরেজ জাতি এমন উপহাস করেনি তো? Thakur লিখলে সমস্যা কি ছিলো?

Train কেন Tren হলো না?
Scinece কেন Sience না?
psychology কেন? এটি তো হওয়া উচিৎ Sycology
schedule > কেন Sedul নয়?
ক্বনো (know) কোন যুক্তিতে নো উচ্চারিত হবে?
কনাইফ(Knife) উচ্চারন নাইফ!!
ক্বনি (knee) এর উচ্চারন নি। পাগলের মাথা খারাপ ইংরেজরা এমন কেন করলো?
হুইসটেল (Whistle) হয় হুইসেল?
অতিমাত্রার পেটখারাপ অসুখকে কিনা বানিয়ে দিলো ডায়েরহোয়া (diarrhoea)! diaria লিখলে কী এমন ক্ষতি হতো?
মুখে বলে কলেরা (kolera) আর লেখে কিনা চলেরা (cholera)!
বলে আইল্যান্ড আর লেখে island.
তালগাছরে বলে পাল্ম (palm), অথচ pam লিখলেই হতো।

এমনি অনেক শব্দের উদহারণ দেয়া যায়। পোষ্ট বড় করে কি লাভ?
প্রশ্ন হচ্ছে আমি কেন Sozib না লিখে Sazib  লেখি? :p

১৫৭৬জন ১৫৭০জন
5 Shares

৬০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ