কেউ কথা রাখেনি;
কথা রাখেনি শরতের নীল আকাশ,
বলেছিল শুভ্রমেঘ হয়ে কেবল আমিই থাকবো-
উড়বো খেলবো হাসবো তার বুক জুড়ে!
অথচ তার বুকে এখন-
অজস্র কালো মেঘের আনাগোনা।

কেউ কথা রাখেনি;
কথা রাখেনি ফাল্গুনের দখিনা বাতাস,
বলেছিল মাতাল হাওয়ায়-
ভেসে নিয়ে যাবে সমস্ত কষ্ট দুঃখ হতাশা যন্ত্রণা,
অথচ সুযোগ বুঝে করে গেলো আমার সর্বনাশ!

কেউ কথা রাখেনি;
কথা রাখেনি বসন্তের কোকিল,
বলেছিল মিষ্টি মধুর গান শুনিয়ে-
ক্লান্ত দুপুরে ক্লান্তি গুলো  মুছে দেবে সুরের মূর্ছনায়!
অথচ তার বিরহী সুর আমায় উদাস করে রেখে যায়!

কেউ কথা রাখেনি
কথা রাখেনি শিমুল পলাশ কৃষ্ণচূড়া
বলেছিল রক্তিম আভা ছড়িয়ে-
রঙিন করে তুলবে আমার রঙহীন ফ্যাকাসে পৃথিবী!
অথচ তাদের রক্তাক্ত রঙের স্পর্শে ক্ষত-বিক্ষত করে গেছে আমার হৃদয় ভূমি!

কেউ কথা রাখেনি;কেউ কথা রাখে না
তাহলে আমি কেনো তোমাকে দেওয়া কথা রাখতে-
রঙিন পৃথিবী ছেড়ে,
আলোর হাতছানি উপেক্ষা করে,
অন্ধকার বাসিনী হয়ে,
আঁধারকে সঙ্গী করে,
তোমার আসার পথ চেয়ে,
একটু একটু করে নিঃশেষ করে দেবো নিজেকে?
নিজেকে নিঃশেষ করবো কারণ-
কারণ আমি তোমাকে ভালোবাসি,
ভীষণ ভালোবাসি শুভ্রনীল!

৩৪২জন ২৩৫জন
0 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য