কাপুরুষ

ত্রিস্তান ২৭ জানুয়ারী ২০২০, সোমবার, ০৭:৩১:৪৩অপরাহ্ন কবিতা ২৪ মন্তব্য

হ্যাঁ আমিই কাপুরুষ
জান ? তোমার এই প্রলয়ঙ্করী আর্গুমেন্ট
আমায় এতটুকুও বিচলিত করেনি,
অথবা –
মুহুর্তের জন্যও হতবাক করে নি।

তুমি যখন চাইতে যেভাবে চাইতে-
আমাকে তৈরি থাকতে হতো,
শরীরে-মনে- মননে,
আমাকে তৈরি থাকতে হতো
অর্থে-বিত্তে- প্রাচুর্য্যে

তুমি যখনি বলতে- এই শুনছো ?

আমায় এটা কখনো বলতে সুযোগ দাওনি –
হ্যাঁ বলো, শুনছি ।

তোমার ইচ্ছে গুলো ছিলো সব সময়ই আটপৌরে ঢংয়ে ভরা
কখনো ভীষণ ক্লান্তি নিয়ে যখন ঘরে ফিরেছি
তখনই তুমি বলতে এই শোন, তুমি এমন অলস কেন
সংসারে তোমার কোন দায়িত্ব আছে ! বলি –
সব কাজই তো একা আমাকেই করতে হয়
আজ অন্তত রান্নাটা না হয় করো !

আমি যখন জ্বরের ঘোরে বেহুঁশ-
তখনি তোমার বৃষ্টিতে ভেজার শখ তুঙ্গে উঠে যেতো
বলি শুনছো ? তুমি আসলেই একটা বেরসিক-
ভেবেছি আজ একটু বৃষ্টিতে ভিজতে যাবো,
অথচ তুমি কম্বল মুড়িয়ে বিভোরে ঘুমাচ্ছ ।
যেন আজই জীবনের শেষ বারি বর্ষণ !

সে দিন বামপন্থীদের ডাকা তুমুল আন্দোলন আর অবরোধে –
একটাও যানবাহন ছিল না,
রাজপথ ছিলো শুন্য, খাঁ খাঁ দুপুরের মরুদ্যান –
চৈত্রের খর-রৌদ্রে ভরা দুপুরে হঠাৎ তোমার তলব
তুমি বাড়ি এসো- আমার এখনি চাই !
ব্যাস আমার কি আর বলার কিছু আছে ?
অফিস ছেড়ে ফুটপাত ধরে পাকা তিরিশ কিলো হেঁটে –
ঘরে ফিরে দেখলাম তুমি বিভোর ঘুমিয়ে আছো !!

আমায় কাপুরুষ বলো তাতে আমি একটুও বিচলিত হইনি-
বরং খারাপ লাগছে এটা ভেবে যে –
আমার সমস্ত অকুণ্ঠ ভালোবাসা সঞ্চিত রেখেছি যে-
হৃদয় মঞ্জিলে,
আজ সেই সিংহাসনে অথর্ব কারো পদায়ন –
আমি সন্তর্পণে সে পথ এড়িয়ে চলি ।

হ্যাঁ বহুদূরের সুউচ্চ অট্টালিকায় –
দখিনের খোলা জানালায় বসে,
আমি সুদূরের সাগরের গর্জন শুনতে পাই
আর শুনতে পাই –
তোমার বিলাসী বাসনায় সজ্জিত দেবী সদৃশ মনের
কি বিভৎস করুন বিসর্জন।

আমি সত্যিই এক কাপুরুষ ।।

উত্তরা, ঢাকা
১ লা কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

২৪৬জন ৭২জন
33 Shares

২৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য