কলিজাহীনা

মাসুদ আলম ১৬ জুন ২০১৫, মঙ্গলবার, ০৮:১৭:০৫অপরাহ্ন বিবিধ ৬ মন্তব্য

আমি দেখিয়াছি সে নরক,

আমি চাহিয়াছি তোর মুখ

মুহূর্তমাঝে ধুইয়া সাফিয়া

ধূলিসাৎ হয় সুখ

যায়রে ফাটিয়া তব ধমনির শিরা

তুই কলিজাহীনা

রুদ্র ধরণীতলে বীণা বাজে

গর্জিয়া ঝংকার

মোর মাঝে বাজে কাঁকন সুরে

ব্যাথা মম আত্মার

 

অগ্নিতপ্ত অনল অশনে

পুড়িয়া যে অঙ্গার

জীবন-মৃত্যু ,সুধা-গরলের

ফারাক পড়ে না আর

 

বুঝবিরে তুই

খুঁজবি রে তুই

ঊর্ধ্ব গগনে, চরণতলে, ভূ-লোক ফাঁড়িয়া,

কাদিয়া ফিরিবি

পথে মরিবি

পাবিনারে খুঁজিয়া

মম আঁখিতে তোর স্বপনে ঝরিয়াছে কান্না

তুই কলিজাহীনা।

কালোর পড়ে

আলোর ভিড়ে,

ভোরের সিক্ত শুভ্র শিশিরে

বিন্দু চমক চকিয়া আঁখি গেলিরে ঝলসিয়া।

 

কহিয়াছিলাম তোর পদতলে করিয়া কুর্নিশ

ওরে কলিজাহীনা একটু ভালোবাসা দিস

তৃষিত ছিল অন্তরআত্মা চাহিয়া কি দেখেছিস??

দেখিবি কিরে, তোর চাহুনি তো বিষ

 

তুই দেখিস নি

তুই বুঝিস নি

তুই শুনিস নি মোর কথা

দিয়া গিয়াছিস যত যাতনা, কান্না, গ্লানি, ব্যাথা

তুই কলিজাহীনা

দেখিবি আমি শেষ দিবসে (হাশরের মাঠে)

দাড়িয়ে আছি রক্ত হাতে,

বুঝিয়া দেব বিধিরে মোর যত দেনা-পাওনা

 

ওহে কলিজাহীনা ।

২৯১জন ২৯১জন
0 Shares

৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ