করোনার মোকাবেলায় আমি

শিরিন হক ২০ মার্চ ২০২০, শুক্রবার, ০১:০১:২০পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৭ মন্তব্য

করোনা রোধে বাড়িওয়ালা সকল ভাড়াটিয়াদের সতর্ক করে দিয়েছেন যেনো কোন মেহমান বাসায় না আসেন বা আমরা কোথাও বেড়াতে না যাই।এক ভাড়াটিয়ার ছেলে বৌ ইতালি প্রবাসে তারা দেশে আসলেও যেনো এ বাসায় না উঠান সে ক্ষেত্রে কঠোর হুসিয়ারি।তাছাড়া ডেঙ্গু ঠেকাতে ফ্লাটের চারপাশ পরিচ্ছন্ন রাখা বেইজমেন্ট পরিষ্কারে বিশেষ ব্যাবস্তা নিয়েছেন।বাড়িওয়ালার এহেনো কাজের জন্য তাকে ধন্যবাদ এবং সাহযোগীতা করতে আমি প্রস্তুত।

সরকার কি করলো বা না করলো সেই পথ চেয়ে বসে না থেকে আমরা নিজেরাই কি করতে পারি করোনা ঠেকাতে সেদিকে আমাদের বিশেষ গুরুত্ব দেয়া প্রয়োজন বলে আমি মনে করি।

একজন গৃহকর্ত্রী হিসেবে পরিবারের সকল মেম্বারদের সাস্থ্য রক্ষায় আমি কি করছি বা করতে পাড়ি?

১।গড়ম পানি করে সর্বক্ষণ সবাইকে খাওয়াচ্ছি।
২।লেবু,ডাব,ফলের যুস করে দিচ্ছি।
৩।তেজপাতা, আদা লবঙ্গ, পানিতে ফুটিয়ে ফ্লাক্স ভরে রেখেছি কিছুক্ষণ পরপর সবাই একটু একটু করে খাচ্ছি।
৪।যারযার পানির পট আলাদা করে ফেলেছি।গ্লাসে পানি পান করা থেকে বিরত কারন আমার বাসায় বাচ্চারা একই গ্লাস ব্যাবহাররে অভ্যস্ত।
৪।রোজগারের তাগিদে বরকে বাহিরে যেতে হচ্ছে সে ক্ষেত্রে তিনি বাসায় এলে বা গৃহশিক্ষক বাসায় আসার সাথে সাথে হাত মুখ ভালো করে ধুয়িয়ে নিচ্ছি।
৫।হ্যাপিং হ্যান্ড কে আগেই নিশেষ করেছি বাসায় না আসতে। নিজের ঘর নিজে পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করছি।
৬।সবজি মাছ মাংস ভালো করে ধুয়ে নিচ্ছি।ডিম সাবান দিয়ে ধুয়ে ফ্রিজে রাখছি।
৭।নামাজ রেগুলার পড়া হতোনা এখন নামাজ কন্টিনিও করবার চেষ্টা করছি।
৮।হ্যান্ড সেনিটাইজার, হ্যান্ড ওয়াস,টিস্যু সংরক্ষণ করতে পারিনাই বাজারে আকাল সেগুলের যা আছে তাই দিয়ে কাজ সারছি।
৯।মা ছেলে তিনজন ঘরেই অবস্হান করছি।
ফোনে সকলকে সতর্ক করছি বারবার হাত ধুয়ে নিতে, পেনিক না হয়ে নিজের যত্ন চিচ্ছি। টিভি মোবাইলে সারা দেশের অবস্তার খবর রাখছি।

এর পরও যদি কিছু করার থাকে পরামর্শ দিতে পারেন সকলে।সারা বিশ্ব যখন সংকটাপন্ন টেনশন তো একটু করবেই।

১০৯জন ৪৪জন
7 Shares

৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ