এক

আহ্! যদি নীল হতাম; শরতের এই আকাশে

তবে হাওয়ায় ভাসা তুলোর মতো-

শুভ্র মেঘকে বুকে ধরে রাখতাম খুব করে!

দুই

যাকে ভেবে কাটছে দিন,

যার জন্য জমছে বুকে-

অজস্র যন্ত্রণার ঋণ!

সে কী তোমায় ভালোবাসে শর্তহীন?

কাছে পেতে চায় অন্তহীন?

তিন

আমার শহরে নির্জন নিস্তব্ধ রাতের সাথে-

ভেসে আসে তাহার নিঃশ্বাসের উষ্ণ স্পর্শ!

মৃদু কুয়াশাচ্ছন্ন ভোরের শিশিরের সাথে-

নেমে আসে তাহার আলিঙ্গনের উষ্ণ শিহরণ!

চার

তুমি নেই ভাবতেই…

কান্নারা মিছিল করে এসে চোখের পাতায়

কষ্টরা আন্দোলন করে নেমে মনের রাস্তায়

যন্ত্রণারা অনশন করে বসে হৃদয়ের আঙ্গিনায়

পাঁচ

হাত বাড়িয়ে দুঃখ ছুঁয়েছি,

মন ছুঁয়েছি ভালোবাসায়!

দুঃখভরা ভালোবাসার ছোঁয়া পেতে-

আমার আমি’কে  নীল কঙ্কণে জড়াই!

ছয়

আঙ্গুলের ডগায় শব্দের নাচুন নেই

নেই অজস্র বাক্যের স্তর বিন্যাস

মস্তিষ্ক জুড়ে আষ্টেপৃষ্ঠে চলছে

শুধু খাঁ খাঁ শূন্যতা আর শূন্যতা বাস!

সাত

কত শত কল্প-কথার জল্পনা

হৃদয়ে এঁকে যায় প্রেমের আল্পনা

আট

প্রিয় ফুল হাতে নিয়ে-

তোমারই অপেক্ষায় প্রহর গুনছি প্রিয়!

জানি তুমি আসবে, ঠিক আসবে

কোনো এক শিউলি ঝরা শরৎ পাতে!

নয়

আমিও একদিন কাশফুল হয়ে-

ফুটেছিলাম  তুলশী গঙ্গা নদীর তীরে।

হাওয়ায় দুলে মন রাঙিয়ে ছন্দ তুলেছিলাম-

কতো শতো প্রেমিকের হৃদয়ে!

হয়তো কোনো প্রেমের কবি কাশফুল ভালোবেসে,

দু’চারটে কবিতাও লিখেছিলো আমায় নিয়ে!

দশ

প্রিয় স্নিগ্ধ ভালোবাসার পবিত্রতায়;বেঁধে রেখো অশান্ত অবাধ্য উড়নচণ্ডী এই আমায়!

শ্বাস কষ্টে ভোগা এই আমি’র; বিশুদ্ধ অক্সিজেন

হিসাবে আমৃত্যু তোমাকেই চাই!

এগারো

এই জানো জানো…..

দখিন জানালার কার্নিশ বেয়ে

চাঁদের আলো চুপিচুপি এসে

আমার ঘরে ঢুকেছে; চোখের পাতা ছুঁয়েছে

আমার অধর ছুঁয়েছে; ছুঁয়েছে নগ্ন চিবুক

বারো

আমি মনের চোখে দেখেছি

তোমার ঐ ঘুমন্ত মায়াময় দুটি আঁখি

কি অদ্ভুত মায়া ছিলো সেখানে লুকায়িত!

আহ্! আমি পরিতৃপ্ত প্রশান্ত মনে-

অতি সন্তর্পনে আলতো করে অধরে অধর ছুঁয়ে

চুপিচুপি পিছু ফিরে এসেছি!

তেরো

আমায় রিক্ত করে, অশ্রু জলে সিক্ত করে

হৃদয়ের উঠান ছেড়ে নিরবে চলে গেছে যে!

সে কেনো আসে ফিরে?

নীলাকাশের মেঘ হয়ে, বাতাসের গন্ধে মিশে

অআধার মানিক হয়ে, তটিনীর বুকে ভেসে

চৌদ্দ

জানি না সে কে ছিল?

যে আবার নতুন করে-

পুরোনো জরাজীর্ণ ফেলে আসা;

ভুলে যাওয়া নাম ধরে ডাক দিয়ে

হারানো শিহরণ ফিরিয়ে দিল!

পনেরো

তুমি আমার হবে;

এটুকু নিশ্চয়তা পেলে

সাদা পায়রার মত উড়াল-

দেবো একলা আকাশে!

ষোলো

যদি তুমি আমার হতে!

নীল ছিটানো আকাশ পথে,

শুভ্র মেঘের ভেলায় চেপে;

পাড়ি জমাতাম মহাকাশে!

১৬৮জন ৪১জন
0 Shares

২৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য