কবিতা নিয়ে কিছু কথা

আকবর হোসেন রবিন ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১২:২২:৪৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৬ মন্তব্য

“ যে – লেখা গুলো পড়লে মন নেচে ওঠে ; গান গেয়ে উঠতে ইচ্ছে করে, চোখে মুখে রং – বেরঙের স্বপ্ন এসে জমা হয়; তা – ই কবিতা। যা পড়লে, দুই তিনবার পড়লে আর ভোলা যায়না, মনের ভেতর যা নাচতে থাকে, তাই কবিতা।”- কবিতা নিয়ে কথাগুলো বলেছেন হুমায়ুন আজাদ।

কবিতা লিখতে হলে, প্রথমে থাকতে হবে স্বপ্ন । নানা রকমের স্বপ্ন। তারপর সেই স্বপ্নকে সাজাতে হবে নানা রংবেরঙের শব্দ দিয়ে। শব্দের পিঠে শব্দ বসিয়ে খেলতে হবে শব্দের খেলা। থাকতে হবে শব্দের প্রতি ভালবাসা। ভালবেসে শব্দকে আদর করতে হবে, বুঝতে হবে শব্দের রং। তবেই লিখতে পারবে কবিতা, হতে পারবে কবি।

দেখো আমার অনেক স্বপ্ন আছে, নানা রকমের স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন গুলোকে সাজানোর জন্য আমি দিনরাত চেষ্টা করি। কিন্তু প্রতিবারই আমি ব্যর্থ। কারণ স্বপ্ন সাজানোর জন্য যে রংবেরঙের শব্দের প্রয়োজন, আমার কাছে তা পর্যাপ্ত পরিমাণে নেই।

তাহলে বিষয়টা কি দাঁড়াচ্ছে?

কবিতা লিখতে হলে স্বপ্নের পাশাপাশি জানা থাকতে হবে রংবেরঙেরের শব্দ। আর তাই প্রথমে পড়তে হবে কবিতা, বুঝতে হবে কবিতা, মনে ধারণ করতে হবে কবিতা, ধারণ করতে হবে শব্দ, নানা রঙয়ের শব্দ।

তোমরাতো আজকাল কবিতা পড়ার আগেই কবিতা লেখা শুরু করো। তাইতো কবি হওয়ার আগেই হয়ে ওঠো ব্যর্থ কবি; ঠিক আমার মতো।

এই দেখো, তুমি যদি লেখো—

দু’পাশে বাতাসে দুলছে ধানের শীষ, মাঝে ভাসমান শাপলা

পিছনে পাটগাছে নাচছে কয়েকটি পাতা

পাতার ফাঁকে চোখে পড়ে দুই জোড়া কাকতাড়ুয়া

দূর থেকে যেগুলো’কে মনেহয় একেকটা তারকা।

উপরের লাইন গুলো পড়ার সময় অনেকেই শুরুতে বলে উঠবে, আরে! এটাতো আমাদের জাতীয় প্রতীক। কিন্তু আমি বলবো এটা তোমার মনের কল্পনা, তোমার স্বপ্ন। যা তুমি সাজিয়েছ নিজের মতো করে।
যদি লাইন গুলো আরেকটু রঙিন রঙিন শব্দ দিয়ে সাজাও, তখন এটা হবে কবিতা।

 

 

৩৪৯জন ১৯৪জন
10 Shares

২৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য