ও আমার বাবার সন্তান –১

পারভীন সুলতানা ৩০ জুন ২০১৫, মঙ্গলবার, ০৮:৪৮:৩০অপরাহ্ন সমসাময়িক ২৬ মন্তব্য

আজ সাত সকালেই মনটা খুউব বিক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে । আর হবেই বা না কেন ! দুটো সংবাদ, একটি অন লাইন পত্রিকায় অন্যটি একটি প্রতিষ্ঠিত জাতীয় দৈনিকে । অনলাইনের খবরটিকে মিথ্যে বা অতিরঞ্জিত কিংবা বানানো বলার অবকাশ নেই। কেননা মোটামুটি ঘটনাস্থল এবং পরিচয় সম্বলিত খবরটি অস্বীকার করার উপায় নেই।

একটি বার বছরের বালিকা তার দীর্ঘ সাত বছরকালীন প্রবাসী পিতার সাথে প্রথম সাক্ষাতেই বুঝতে পারে সে যে  পিতৃস্নেহ, মায়ামমতা এবং ভালবাসার আকাঙ্ক্ষার জন্য উন্মুখ হয়ে বসে আছে , তা তার পিতার মধ্যে অনুপস্থিত এবং তদস্থলে কাম এবং রতি উন্মুখ পিতা এক ভয়ঙ্কর ধর্ষক । জী ঘটনাটি ঘটেছে আফঘানিস্তানের এক শহরে । অথচ এই পশুঅধম পিতার অনুপস্থিতকালে  অন্যান্য মামা চাচাদের কাছে সে তার শিশুসুলভ প্রাপ্য আদর ভালবাসাই পেয়েছে । যেদিন প্রথম এই ঘটনা ঘটে মেয়েটি সারাদিন রুমের এককোণে পড়ে থাকে । নিয়মিত একই ঘটনা ঘটতে থাকে এবং মেয়েটি তার দাদিকে জানায় । খুব অবাক কান্ড এই অধমপশুর জননী কোন প্রতিক্রিয়া দেখায় না । অর্থাৎ পারিবারিক বা জন্মেই যার আজন্ম কলুষতা নিহিত ছিল, তাতে কোন সন্দেহ নাই । এইভাবে চলাকালীন মেয়েটি গর্ভধারণ করে, তখন পিতা নামক অধমপশু মেয়েটিকে নিয়ে দূরে গ্রামে যায় , সেখানে একটি কন্যা জন্ম নেয় এবং তখন বাচ্চাটিকে মেয়েটির কাছ থেকে নিয়ে যাওয়া হয়। কোথায় নিয়ে যাওয়া হয় মেয়েটি জানতে পারে না এবং আজতক জানে না। এই ভাবে দশ বছর সে নিয়মিত ধর্ষণের স্বীকার এবং একটি কন্যা সন্তানের জননী। এই একটি মাত্র সন্তান জীবিত যার পিতা মেয়েটিরও পিতা । এ ছাড়াও সে আরও কয়েকবার গর্ভবতী হয় এবং তা গর্ভপাতে শেষ হয় । আফঘানিস্তানের কোর্টে এই মামলা যখন চলে তখন বিশ্ব বাহায়া পশুঅধম পিতা কন্যাকে দুশ্চরিত্র বলে আখ্যায়িত করে ।সদাশয় কোর্ট জানতেন , মেয়েটিকে না হলে শাজা ভোগ করতে হবে, তাই তিনি ডি এন এ টেস্টের আদেশ দেন । বাচ্চার ডি এন এ টেস্ট করা হয় ( আমেরিকাতে পাঠানো হয়) এবং দিব্য সত্য প্রকাশ পায় । মেয়েটি নিজের কন্যা সন্তানকে দেখিয়ে বলে “ও আমার বাবার সন্তান” ।

আমার খুব সামান্য ধ্যান এবং জ্ঞানে এটুকু বলতে পারি , আজতক পৃথিবীতে এমন কঠিন নির্মম চরম সত্য বাক্য সম্ভবতঃ ইতিপূর্বে আর উচ্চারিত হয়নি। সেই থেকে আমি খুব অস্থির আছি ,বিক্ষিপ্ত হয়ে আছে মন। এমন নয় যে আগে কোথাও  পিতা দ্বারা কন্যা ধর্ষিত হয়নি ! হয়েছে , খোদ আমেরিকা এবং ইংল্যান্ডে এমন হয়েছে । কিন্তু তারা নিজ কন্যার সন্তানের পিতা হন নি । আফঘানিস্তানের মত ঘোর মুসলিম রাষ্ট্রে একি অনাচার । এর অর্থ কি ? আমরা কি আর মানুষ নেই ? আমরা ফিরে গেছি সে আদি যুগে, পশুর দুনিয়ায়। যেখানে মা বাবা সন্তানের কোন আলাদা পরিচয় নেই । পরিচয় একটাই , একজন পুরুষ অন্যজন নারী । আর নারী মানেই ভোগের সামগ্রী ।

চলেব………………………………………………………………………………………

৬১৭জন ৬১৭জন
0 Shares

২৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ