এ্যা জার্নি বাই বাস

আরজু মুক্তা ৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৯:৪৩:২৭অপরাহ্ন রম্য ২৫ মন্তব্য

চট্টগ্রাম থেকে কুড়িগ্রাম আসতে ১৬/১৮ ঘণ্টা লাগে। সাধারণত আমরা রোজার সময় আসি। ছুটি বেশি থাকে। মা মেয়ে আগে চলে আসি। কোন এক কারণে  আমাদের কোরবানি ঈদে আসতে হলো। নাবার বাবাও সাথে। ঐ সময় ছুটিও কম।  আবার জ্যাম। এবার ভালোই আক্কেল হলো। কানও ধরলাম, আর অন্য সময় যাবো না।

সেদিনের ঘটনা। বাস চট্টগ্রাম থেকে বিকেল ৫ টায় ছাড়লো। নারায়নগঞ্জের জ্যাম ঠেলে গাড়ি বাইপাইল নামক স্থানে এসে, পিঁপড়ের মতো চলা শুরু করলো। তখন ফযরের আযান দিয়েছে। বাসে আমার ঘুমও হয়না। নাবার বাবা একটু পিছনে, এফ ২ এ বসেছে। কিছুক্ষণ পর দেখি সবাই উঠতেছে। ওরে বাবারে থাকা যায়না, কে যে টয়লেট করছে। সবাই সুপারভাইজারকে ডাকছে,,ঐ ব্যাটা, কই গেলি?

সুপার ভাইজার এসে, ঐ লোককে বলছে, এইডা কেমন কাম করলেন? গাড়ি তো থামাই ছিলো।

লোকটা বলছে, জোরে চাপ আসছে, কিছু করার নাই।

গাড়ি এমন জায়গায় থামছে, আশেপাশে কোন ও বাড়িঘর নাই। জমির পর জমি। তার কিছু দূরে দুই একটা বাড়ি দেখা যাচ্ছে। লোকটাকে ওখানে পাঠানো হলো। যাও পরিষ্কার হয়ে আসো।

লোকটা আসার পর গাড়ি চলা শুরু হলো। এলেঙ্গায় এসে আবার জ্যাম। গাড়ি থামতেই কোথা থেকে মাছি এসে ঐ লোকটার চারিদিকে ভীড় করলো। পাশের লোকটা মনে হয় ঘুমাচ্ছিলো। মাছির শব্দে উঠে দেখে, আবারও গন্ধ। সবাই নেমে গেলো।

সুপারভাইজার ভাই এসে, চিলাচ্ছে; আবার অকাম করলেন।

লোকটি বলছে, করিনি তো?

তাইলে মাছি কেমনে আসলো? শালা তুই ব্যাগ খোল। দেখা গেলো, যে প্যান্টে অকাজটা করছিলো, সেইটা না ধুয়ে ব্যাগে ঢুকায় আনছে।

 

বোঝেন বাঙালির অবস্থা। কবে যে এরা সচেতন হবে?

 

এবার লোকটিকে পাশের জমিতে নামায় দিয়া, সুপারভাইজার বললো, প্যান্ট চটকা মার।

তারপর স্প্রে করে বাস চলা শুরু করলো।

গাড়ি এসে শেরপুরে থামলো।

সবাই খাওয়া দাওয়া শেষ করে উঠছে। আবার ও টয়লেটের গন্ধ। ফির চিল্লাচিল্লি, ঐ ব্যাটাই এই কাজ করছে। এইবার সুপার ভাইজর বলছে, কি দিয়ে ভাত খাইছোস? হজম না হইতেই তোর এই অবস্থা!

ভাই, চিতল মাছের পেটি খাইছি।

ধুর শালা! তুই বাস থেকে নাম।।

সেইদিন বাড়ি আসতে ৩০ ঘণ্টা লাগছিল!

 

A JOURNEY BY BUS!!!

😂😂😂😂

২৬৭জন ৩০জন
0 Shares

২৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য