প্রিয়র বায়নার কাছে হাড় মেনে অবশেষে একজোড়া কোয়েল পাখি কিনে দিতেই হোল। খুব ছোট ছিল তখন কোয়েলরা। সব খেলনা বাদ দিয়ে জীবন্ত খেলনার পিছনে প্রিয় তখন থেকে। খাবার খাওয়ানো , পানি খাওয়ানো সব প্রিয়র তদারকিতে চলছে। ঘুম থেকে উঠেও দেখে আসে কোয়েলরা কি করে । একদিন তার মনে হোল ঘুমাতে কষ্ট হয় ওদের । সামনের ফার্মেসি থেকে তুলা নিয়ে ওর মাকে বললে প্রথম তো হাসির হুল্লোড় সারা বাসায়। অতঃপর বানিয়ে দেয়া হলো ২ টি বালিশ। আমরা অবাক হয়ে দেখি রাতে বালিশ ২টির ওপর চিত হয়ে ঘুমাচ্ছে ওরা ।
১ মে থেকে ডিম দেয়া শুরু করেছে মিসেস কোয়েল । ৭ মে পর্যন্ত মোট ৭ টি ডিম দিয়ে মারা গেল ডিম পারা কোয়েল পাখিটা । কোন এক অজ্ঞাত পোকার কামড়ে মৃত্যু হতে পারে তার।
সেই থেকে কাঁদছে সঙ্গিনীর জন্য জীবিত কোয়েল পাখিটা। কাঁদছে প্রিয়। প্রিয় যতক্ষণ জীবিত কোয়েল পাখির কাছে থাকে ততক্ষণ কোয়েলের কান্না নেই। ৭ টি ডিম এখন প্রিয়র কাছে অমূল্য সম্পদ । আশা একটা নতুন কোয়েল আসবে , তা দিয়ে বাচ্চা ফোটাবে । খারাপ লাগে আমাদেরও ।

কোথায় পাই তার একজন সঙ্গিনী ? যশোর থেকে কোয়েলের ফেরিওয়ালা এসেছিল কেনার সময়ে , তাই কিনতে পেরেছি। আমাদের এলাকার সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজ নিয়েছি , নাই ।

এটি একটি পরিবারের সুখ দুঃখের কাহিনী। এসব নিয়েই আমার দিন রাত্রি ।

২১৬জন ২১৬জন
0 Shares

৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

️️ 🍂️️ 💝 ️️ 🌟 🌺 💐 💥 🌻 🍄 🌹 💐 ⭐️ 🎉 🎊