নীল মেঘের মানচিত্র...

আজ সকালটা রোজকার মতোই । শুধু আকাশে সূর্য নেই । বাতাসের প্রচন্ড তীব্রতা আর ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি । হাওয়ার দমকে বৃষ্টির গতি বেড়ে যায় , তারপর আবার শান্ত বালিকার মতো টুপটাপ ঝরে পড়ে । এসব দেখে এই চোখ ভুলে যায় না-পাওয়া সব । কাজে যাবার ব্যস্ততায় এমন অনেক সৌন্দর্য চোখের আড়ালে থেকে যায় । কারণ পথে নামতেই দে-ছুট , বাস না মিস হয়ে যায় । যাক এখন আমি বাস স্টপেজে দাঁড়িয়ে আছি । দূর থেকে দেখা যাচ্ছে বাস আসছে । যাক উঠে নেই আগে , পরে আবার গল্প , কেমন ?

বাস ছেড়ে দিলো । এই পাঁচ নম্বর বাসটা আমার খুব প্রিয় । যদিও বাসা থেকে বেড়িয়ে অনেকখানি পথই হাঁটতে হয় । কিন্তু যখন উঠি বাসটাতে , যেনো সবুজের ধারাপাত পড়া শুরু হয়ে যায় । বাসের জানালা দিয়ে দেখছি ধূসর মেঘকে জড়িয়ে নিতে সবুজ তার দু' বাহুকে প্রসারিত করেছে । ঘন সবুজ এতো রঙ তোলে আমার চোখে , দ্রিম দ্রিম করে কাঁপতে থাকে সমস্তটি মন । ইচ্ছে করে ছুটে যাই সব কাজ ফেলে । গন্তব্যে পৌঁছে যাবার মুহূর্তেই বৃষ্টি থেমে গেলো । আচ্ছা নেমে নেই বাস থেকে । ওমা এভাবে সূর্য আমাকে স্বাগত জানাবে , ভাবিনি । ওর আলোর ঝর্ণাধারায় এই যে আমি ভিঁজে যাচ্ছি ।

কাজ শেষ হলো , এখন ৪১ নম্বর বাসের জন্যে অপেক্ষায় আছি । এই দেখো আবারও বৃষ্টি । বাস স্টপেজে একজন মানুষও নেই । এমন বৃষ্টি দেখে কি চুপ করে থাকা যায় ? তাও চারপাশে কেউ নেই যখন ? গানটা গেয়েই ফেলি । বৃষ্টিকে না শুনিয়ে কি করে থাকি ?

"আজি ঝরো ঝরো মুখর বাদর দিনে
জানি নে জানি নে
কিছুতে কেন যে মন লাগেনা...।"

একটা গোপন কথা আছে , আমার এই সুর শুনলে মেঘের বারোটা বেজে যায় । এতোটাই অসহ্য আমার বেসুরো কন্ঠ ওর কাছে । বৃষ্টি থেমে গেছে । বৃষ্টি যেনো রাগান্বিত চোখে বলছে , "এই মেয়ে তোর কি সমস্যা ? এতোটা দিন পর এলাম , আর তুই আমায় থামিয়ে দিলি ?"

**না বলে পারছি না , সত্যিই সেদিন অনেক জোরে জোরে সুর তুলেছিলাম । আর বৃষ্টির রিদম ভিডিও করতে গিয়ে আমার বেসুরো কন্ঠও যোগ হয়েছিলো...ভিডিওটায় আমার ক্যাটক্যাটে গলাটা না থাকলে দিতাম । সেদিন ভিডিও একটা কারণেই করেছিলাম , আমার দেশের বৃষ্টির সাথে এতো মিল আমি অনেক বছর পর পেয়েছিলাম ।

বিঃ দ্রঃ - ক্যাটক্যাটে কন্ঠ যারা শুনিতে চাহিয়াছেন , উনাদের জন্য এই প্রীতি উপহার । এই গলা শুনিবার পরেই বৃষ্টি দেবী গালাগাল করিয়া চলিয়া গিয়াছিলেন । আর বৃষ্টি থামিবার সঙ্গে সঙ্গেই ওই ভাবেই সূর্য উদিত হইয়াছিলো । আর এই সেলফোনের ক্যামেরা ছবিখানাকে তাহার বাক্সে ভরিয়া নিলো ।

হয়তো চলবে
নয়তো না
কি যে হবে
সে জানিনা…

হ্যামিল্টন , কানাডা
২১ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ ইং ।

মন্তব্যে বেশ কয়েকজনের অনুরোধের প্রেক্ষিতে ক্যাটক্যাটে কণ্ঠে আমার বুড়োর গান... এর ইউটিউব লিংক দিলাম এখানে।

0 Shares

২৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ