সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

এবার কাকলির ধাক্কা

হালিমা আক্তার ১৪ আগস্ট ২০২১, শনিবার, ১২:৫২:০০পূর্বাহ্ন সমসাময়িক ১৮ মন্তব্য
  1. শাহজালাল, জাহাঙ্গীর এর পরে কাকলির ধাক্কা। এবারও টার্গেট পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর পিলার। এ আঘাতটা কি শুধু পিলারে লেগেছে, না আমার কলিজার মধ্যে লেগেছে। সকালে টিভি অন করতেই , টিভি চ্যানেলগুলোর ব্রেকিং নিউজ চোখে পড়ল। পদ্মা সেতুর পিলারে আবারো ধাক্কা। মনে হল ধাক্কাটা আমার হৃদয় বসিয়ে দিয়েছে কেউ। শুধু আমার নয় দক্ষিণাঞ্চলের কোটি কোটি মানুষের স্বপ্ন এ সেতু। আমার দৃঢ়বিশ্বাস কোটি কোটি মানুষের কলিজায় ধাক্কা লেগেছে। তাঁদের অনুভূতিতে আঘাত লেগেছে।

উত্তাল পদ্মায় সেতু হবে এটা ছিল আমাদের কল্পনার অতীত। কল্পনা নয় আমরা পদ্মা সেতুর স্বপ্ন দেখতে শুরু করলাম। একসময় তা বাস্তবে রূপ নিতে লাগল। আমরা এখন আমাদের স্বপ্নের খুব কাছাকাছি চলে এসেছি। উত্তাল পদ্মা পাড়ি দিয়ে গ্রামের বাড়ি যাওয়ার কত স্মৃতি এখনো ভেসে বেড়ায়। সেই স্মৃতি কোন একসময় লেখা যাবে।

কোটি কোটি মানুষের স্বপ্নে কে বা কারা যেন বারবার আঘাত হানছে। মনে হচ্ছে স্বপ্ন গুলোকে কেউ পদ্মায় ভাসিয়ে দিতে চায়। পদ্মা সেতুর পিলার বসানো হয়েছে তিন বছর হয়ে গেছে। এতদিন কোনো পিলারে ধাক্কা লাগে নাই। বর্ষার সময় প্রতি বছরই নদীতে তীব্র স্রোত থাকে। তাছাড়া দুই পিলারের মাঝে বিশাল জায়গা। এরপরে ও ধাক্কা লাগছে। ফেরি চালকরা বলছেন তীব্র স্রোতের কারণে তারা নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারছেন না। এ উত্তর কতটুকু যৌক্তিক। সংবাদে প্রকাশ ফেরি চলাচলের রুট হচ্ছে দুই থেকে ছয় নং পিলার। ধাক্কা লাগছে ১০ ও ১৩ নং এ। এ ব্যাপারে কতৃপক্ষ কি বলবেন। কেনই বা যথাযথ নির্দেশ মানা হচ্ছে না। জুলাই মাসের ৯, ১৬,ও ২৩ তারিখ। এ মাসের ৯ ও ১৩। এক মাসে পাঁচ বার ধাক্কা। ব্যাপারটা কেমন যেন কাকতালীয় মনে হচ্ছে। কাকলির চালক জুলাই মাসের ১৮ তারিখ থেকে এ রুটে ফেরি চালনা করছেন।

বারবার পিলারে ধাক্কা ইচ্ছাকৃত না অনিচ্ছাকৃত আমরা জানি না। আমরা জানি পদ্মা সেতু রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।  প্রতিবারই ধাক্কার পর তদন্ত কমিটি হয়, চালক বরখাস্ত হন। কিন্তু এটা কোনো স্থায়ী সমাধান হতে পারে না। পদ্মা সেতু রক্ষায় এবং সেতুর  নিরাপত্তার কারণে প্রয়োজনে ফেরি ঘাট পরিবর্তন করতে হবে। এটা কোনো নাশকতা মূলক কাজ কিনা তা ক্ষতিয়ে দেখতে হবে।

 

১৫৮জন ৩১জন
0 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য