এক মুঠি কথা

স্বপ্ন নীলা ১২ জুন ২০১৫, শুক্রবার, ০৮:৩৯:৪৪অপরাহ্ন বিবিধ ২২ মন্তব্য

সে কত বছর আগেকার কথা, সেইদিন সন্ধা ডোবানো আকাশে চাঁদ উঠেছিল, জানালা দিয়ে চাঁদ তার আলো ঢুকিয়ে দিচ্ছিল, ওস্তাদ দিদি আমায় গান শেখাচ্ছে ’ জাত গেল জাত গেল বলে – একি আজব কারখানা –’ আমার গলায় রবি বাবুর গান শোভা পায়, তাই লালনের গান যখন গাইছিলাম তখন মনে হচ্ছিল গলা আমার ফেটে যাচ্ছে — আমি গান গাওয়া রেখে চাঁদ দেখতে লাগলাম-বিরাট থালার মত চাঁদ নরম মন ছোঁয়ানো জোৎস্মা ছেড়ে দিচ্ছে, আর এই অসময়ে হেরে গলায় লালনের গান !!! আমি আনমনে গেয়ে উঠলাম ’আজ জোৎস্মা রাতে সবাই গেছে বনে’—। দিদি আমায় বললেন, তোমার গানের সাথে আজকের পরিবেশের দারুন মিল, কিন্তু আজ লালনের গানটা শেষ কর— মনে মনে ভাবলাম, ইস ! কি বেরশিক দিদিরে বাবা ! এত সুন্দর মত মাতানো পরিবেশ ! — আবারও শুরু করলাম গান — এক পর্যায়ে একটা লাইন খুবই গুরুত্ব দিয়ে গাইতে লাগলাম —’গোপনে যে বেশ্যার ভাত খায় -তাতে ধর্ম’এর কি ক্ষতি হয় -’ কিন্তু আমার দিদি বললেন, শোন ঐ বেশ্যা শব্দটি উচ্চারণ করবে না, বরং বল,’ গোপনে যে কূলটার ভাত খায়”— আমি বললাম, কেন দিদি ! দিদি বললেন, এই শব্দটা শুনতে কোন ধর্ম’এর মানুষের ভাল লাগবে না –তাই একটু ঘুরিয়ে বল !! আমার তখন আর জোৎস্মা ভাল লাগছিল না, শুধু দিদির কথা মাথার ভেতর ঘুরপাক খাচ্ছিল — আমরা কতটা ভন্ড, কতটা অভিনয় করি যে সত্যিটা বলতে /শুনতে আমাদের বুকে কাঁপন ধরে !!! দিদিকে বললাম, দিদি ! আমি এই লাইনটা ঠিকই গাইবো, কোনই পরিবর্তন করবো না, দিদি আমার আত্মবিশ্বাস দেখে বললেন, আমরা মানুষেরা বড়ই অদ্ভূত, তাইতো আমাদেরকে সমাজে হিসেব কষে চলতে হয় — আমার সব মন তখন ঐ লাইনটায় –আমি মন দিয়ে গলা ছেড়ে লালনের গান গাইতে লাগলাম –দিদি আমার মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে বললেন, তুমি পারবে —

৪৭৭জন ৪৭৬জন
0 Shares

২২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ