একটি ভালবাসার গল্প-৩

তির্থক আহসান রুবেল ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১, সোমবার, ১২:২২:০১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৯ মন্তব্য
– যার জন্য আপনি অন্ধ প্রেমে মত্ত, সে আপনাকে ভালবেসে ফেলার ভয়ে আছেন! ইন্টারেস্টিং।
– তা বলতে পারেন। চমক-আবিস্কার না থাকলে তো আর ভালবাসা, ভালবাসা থাকে না। রুটিনওয়ার্ক হয়ে যায়।
– কিন্তু চমক-আবিস্কারের সাথে ভয়ের কি সম্পর্ক?
– সেখানেই তো খেলা। আপনার সহ্য ক্ষমতা কতটুকু! কতটুকু চমক আপনি নিতে পারবেন! কতটা আবিস্কারের জন্য আপনি প্রস্তুত!
– শরীর?
– না। শরীর তো আজ আছে কাল নেই। মন শরীরকে নিয়ন্ত্রণ করে। শরীরের নিজের কি ক্ষমতা!
– তাহলে?
– শরীর না হয় শরীরের আগুন নেভালো। কিন্তু মনের আগুন! শরীরের ক্ষুধা মিটে যায় কোন না কোনভাবে। কিন্তু মনের ক্ষুধা!
– এতো এভেইলেবল। চাইলেই পাওয়া যায়।
– ম্যাডাম, শরীরকে ভুল বুঝিয়ে কৃত্রিম খাদ্য দিতে ঘুম পাড়াতে পারবেন। মন বড় চালাক। তার আসল চাই।
– এটা তো লোভ নাকি বলবেন দূর্লভ।
– লোভ এবং দূর্লভ দুটোই আপন। দূর্লভের প্রতিই লোভ জাগে। আর ভালবাসা সহজে পেলেও তাকে সহজলভ্য ভাবে না। কারণ ভাল বাসতে পারাটাই একটা দূর্লভ ব্যপার। আর ভালবাসা পাওয়াটা বিলুপ্ত প্রায় এক অভিযান।
– অন্ধের মতো ভালবেসেছেন। তাহলে গ্রহণ হলো না কেন!
– হয়ত অন্য কাউকে অন্ধের মতো ভালবেসে বসে আছে!
১১০জন ১জন
0 Shares

৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য