একটি অ-লেখার ছিন্নাংশ……৫

ছাইরাছ হেলাল ৩০ মে ২০১৩, বৃহস্পতিবার, ০৯:২১:২০পূর্বাহ্ন বিবিধ ২০ মন্তব্য

দ্বিতীয় জনের আর একটি গল্প , স্যারের কাছে শোনা ।
একবার কী হল — সে ঠিক করল ভূত পুষবে , বেশ তো কেউ নিষেধ করেনি , তা বাবা তুমি ভূত কেন ব্রহ্মদৈত্য ও পুষতে পার । এখন প্রাথমিক সমস্যা হল ভূত তো হঠাৎ পড়ে পাওয়া দু’আনা বা চৌদ্দআনা গোছের বস্তু না বা  চাইলেই পাওয়া যায় এমন কিছু । যাই হোক কী করে না করে ভূত একটি সে জোগার করেই ফেলল এবং ভূতের সাথে এই মর্মে একটি অলিখিত চুক্তিতে উপনীত হল যে ভূতটি পোষ মানবে কিন্তু পোষ মানবে না । এ রকম ও যে চুক্তি হয় তা জীবনে প্রথম শুনলাম । যাক আমার কোন সমস্যা নেই , যার পাঠা সে ঘাড়ে বা লেজে যেখানে কেটে খুশি থাকুক ,তা থাকুক না  । অপেক্ষায় থাকলাম দেখিনা কি হয় টাইপের । কয়েকদিন পরে আবার দেখা , বেশ ঝিম ধরা ভাব , জানাল  বেশ ভালই চলছে ভূতের সাথে বসবাস , যদিও অধিকাংশ ব্যাপারেই দ্বিমত , তা সত্বেও বহু ভাষাবিদ জ্ঞানী ভূতটি যখন যে বইপত্র দরকার তা এনে দিতে কাল-বিলম্ব করে না । আবার তর্জমার কাজটিতেও ভালই পারঙ্গম । ভাবছি এবারে কিছুদিন ফ্রানৎস কাফকা পড়ব । মনে মনে প্রমাদ গুনলাম । এ যাত্রায় কথাবার্তা এখানেই শেষ । এর বেশ কিছুদিন পর তাকে আবিষ্কার করি হাসপাতালের বেডে , প্লাস্টার করা হাতটি গলায় ঝোলান । আমি কাছে গেলে আমার কানের কাছে মুখ নিয়ে বলল এবারে সে ঠিক করেছে সন্ন্যাস নিয়ে হিমালয়ে গিয়ে কিছুদিন থাকবে সন্ন্যাসীদের সাথে , এ লাইনে আমার কোন পরিচিত কেউ থাকলে যেন তাকে জানাই । এ গল্প শোনার পরে আমরা ভেবেছি , যে মানুষ এই সব উন্মাদ নিয়ে চলে-ফেরে সে কি পুরোপুরি ঠিক আছে ? সিদ্ধান্তে আসতে পারিনি আমরাও। উত্তুঙ্গ উত্তম্মন্যতা ছাড়াই স্যার ছিলেন অভেদ্য উচ্চতায় আমাদের কাছে ।

২২৪জন ২২৪জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য