বন্ধু মানেই এলিয়ে দেয়া নিরাপত্তার নি:শ্বাস…

উত্তর এবং প্রত্যুত্তর : তিরি এবং অহম : পঞ্চদশ ভাগ

সাতান্ন -
তিরির প্রতি

এভাবে আমায় আর জ্বালাস না প্লিজ। তুই যা চাইবি, তাই দেবো। কোনো পিউকে চাইনা। ময়ূরীই তো ঠোঁট দিয়ে খোঁচা দেয়। খোঁচা কি বলছি ঠোকা।

যাক খুব সিরিয়াসলি একটা কথা বলে রাখছি, আমি বিয়ে করবো না। তার জন্যে যদি তুই আমার সাথে বন্ধুত্ত্ব নাও রাখিস, ক্ষতি নেই।

= অহম

আটান্ন
অহমের প্রতি

এভাবে তুই বলতে পারলি?

= তিরি

উনষাট
-তিরির প্রতি

স্যরি। ক্ষমা করে দে। তবু আড়াল তুলিস না। ভুল হয়ে গেছে এতো কঠিনভাবে বলাটা। পাগলী তুই যা বলবি, সেটাই শুনবো। ফোন দিয়ে যাচ্ছি, কেন তুলছিস না ফোন বলতো? ভালো আছিস তো?

= তোর অহম

রিনী এবং অহমের কথোপকথন :
অহম - হ্যালো রিনী?
রিনী - বলছি, কে অহম?
অহম - হুম আমি। কেমন আছিস?
রিনী - এইতো রে, মনটা ভালো নেই। এই ফিরলাম হসপিটাল থেকে।
অহম - কেন কি হয়েছে?
রিনী - জানিস না? হঠাৎ করে সাত দিন আগে মাথা ঘুরে পড়ে গেলো তিরি। প্রিয়'দা এসে দেখেন লিভিং রুমের জানালার পাশে পড়ে আছে ও।
অহম - বলিস কি! শোন আমি যে ফ্লাইট পাবো আসছি। প্রিয়-তিরিকে জানাস না, অস্থির হয়ে পড়বে। প্লেনে উঠে আবার ফোন দেবো। বাই

**************
হ্যামিল্টন,কানাডা
১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫ ইং।

0 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ