ঈঁদ যখন ইদ হয়ে যায়

পর্তুলিকা ১৬ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৩:৫১:২৫পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৭ মন্তব্য

ঈঁদ যখন থেকে ইদ হইয়া গেলো, তখন থেকেই নিজের চোখ নিজেরই খুবলে নিতে ইচ্ছা করতাসে। কি দেখতাসি এসব! কি শুনতাসি? এগুলো কি প্রতারণা নয়? এইযে আমি আদর্শলিপি পইড়া পইড়া মোটামুটি শিক্ষিত হইয়া ক্লাস ওয়ানের লিখিত ইন্টারভিউ দিতে গিয়া বহুবছর আগে ফেল মারছিলাম, এখন সেই ভর্তুকি কে দিবো? সেখানেতো আমি ঈঁদকে ইদ, আর ঈগলকে ইগলই লিখছিলাম! শুধু কি তাই, গরুকে মাঝে মাঝে গুরুও লিখতাম। তখন তো বাংলা একাডেমি কিছু কইলো না, আর এখন যেইই ভুল বানান গুলা আয়ত্ত কইরা নিলাম তখুনি কিনা তারা বাগড়া দিতাসে!😡

ফেসবুকে একটা পোস্ট দিছিলাম, ক্যাপশন দিলাম, পছন্দের ভিডিও।

ওমনি কিছু বানান দরদী আইসা আমারে  কইলো ওটার বানান ভিডিও না ভিডিয়ো হইবো!

রিপ্লাই দিলাম, আমি জানতাম না, ঠিক করে নিও।🙄

তাতেও মুশকিল, বলে নিও হবে না, নিয়ো!

ধুর, প্রসঙ্গ বদলাইয়া কইলাম দেখোতো আমার প্রোফাইল ছবিটা ফর্সা না হইয়া কালো হইলো ক্যামনে?

– ফর্সা বানান ভুল, এখন থেকে ফরসা লিখবা 🥴

জিজ্ঞেস করলাম এবার ঈঁদে কি গরু কুরবানী দিবা না ছাগল?

-ইদে আমি গোরু কোরবানি করি।

ওও, কিন্তু আরবি ভাষায়তো ও কার নাই, হরফের নিচে পেষ দেয়ার পর উ হয়ে যায়! 😉

– জানিনা, বাংলা একাডেমিরে জিগ্যেস করো

হায় আল্লাহ, এইভাবে ঈঁদকে ইদুর থুক্কু ইদ বানানোর জন্যেই কি গরুকে গোরু বানাইয়া দেয়া হইলো! 🤔

ইচ্ছে ছিলো অনেক কিছু লেখার। কিন্তু লিখতে ভয় লাগতাসে। কে জানে ভুল বানানের ফেরে পইরা কোনটা শুদ্ধ আর কোনটা না জানি সিদ্ধ হইয়া যায়! 🤭

 

অনেকদিন পরে ব্লগে আইসাও কিছু লেখতে পারলাম না, হায়রে বানাম, 😭

 

ছবি, নেট থেকে হাওলাত করসি।

৫১৬জন ৩০৬জন
32 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ