আমি কেমন //……..???

বন্যা লিপি ৮ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০২:৫২:১৩পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৫ মন্তব্য

অনেকদিন আগে একটা ছোট্ট লেখা লিখেছিলাম,নিজেকে চেনা বিষয়ে, অন্যের আয়নায় কি কেউ নিজেকে চেনে? চিনতে হলে আসলে নিজেকেই নিজের আগে জানতে হয়/ চিনতে হয়। আমরা কে কতটা নিজেকে চিনি বা জানি? এক জীবনে গড় আয়ু নিয়ে শৈশব থেকে বয়োঃবৃদ্ধাবস্থা পর্যন্ত এই চেনা-জানা’র দোলাচালে কাটিয়ে দিতে দিতে একসময় টুপ করে সব ছেড়ে ছুঁড়ে নিজ আবাসভূমে গৃহপ্রবেশ করি চিরতরে। মৃত্তিকার উপরিভাগে বিচরনরত সঙ্গি সাথী বন্ধু বান্ধব আত্মীয় অনাত্মীয় তামাম জনগণের কাছ হতে তখন বেরোতে থাকে স্মৃতি থেকে উচ্চারিত ভালো মন্দের প্রশংসাপত্র । এর বিপরীতও তো ঘটে ! এই যেমন আমরা কারো সম্পর্কে অহরহ বলে যাই অমুকে এমন, তমুকে তেমন! কার্যব্যাবহারিক আচরনবিধি পরিমাপক মাপকাঠি আমাদের অধিকার বা অনধিকারে বাঁশের কেল্লায় অবিরত বন্দী করে রেখেই আমরা একে অপরের গুণাবলী-বে-গুণাবলী নিয়ে রসিয়ে রসিয়ে আচার বা চাটনির মত উপভোগ করতেই থাকি। কেউ দ্যায়না এ অধিকার। আমরা আমাদের হামবড়া মনোভাবের যৎকিঞ্চিত  মনোটোনাস প্রক্রিয়ার প্রতিফলন ঘটাই মাত্র! একেকজন তখন তাবড় তাবড় মনোবিজ্ঞানী  হয়ে উঠি, নিজেকে মানুষ চেনার বা জানার জ্ঞানগর্ভ থেকে। এখানে আরো কিছু শব্দ প্রয়োগ করতে পারলে ভালো লাগতো আমার। আমার ইচ্ছে করছে না এখন আরো কিছু সংযোযন করতে। কেন এই লেখার উৎপত্তি? আসলে বেশ কিছুদিন ধরেই আমি ভীষণ  মানসিক অস্থিরতায় কাটাচ্ছি সময়। সার্বিক বাস্তবিক সামাজিক সাংসারিক এবং সর্বোপরি একান্ত ব্যাক্তিগত মানসিক পরিস্থিতীর কারনে। মানসিক অবস্থা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য বহু কিছু করছি, সুফল তেমন পাচ্ছি না। একটার পর একটা অঘটন ঘটেই যাচ্ছে অবিরত। বই পড়ার চেষ্টা,,গান শোনা, ছোট ছেলেকে  বললাম- আমাকো সাদা কাগজ পেন্সিল কাটার ইরেজার এনে দে , আমি আঁকাআকি করিনা বহুদিন।

ভুল ভাববেন না কেউ, আমার শখের মধ্যে এই একটা বড় প্রিয় শখ,  কাঠপেন্সিলে  যা ইচ্ছা তাই হাবিজাবি আঁকাআঁকি। ছেলে এনেও দিলো, পেন্সিল ধরে দেখি…….. আমি রেখা টানতেই ভুলে গেছি। তারপরও প্রিয় কাগজ গুলো আমার চোখের সামনে নিয়ে বসে থাকি। আনাড়ি হাতে নদী,পাহাড়, ঘাস, আকাশ, গাছ, কাঁশবন আঁকার দুঃসাহসে পেন্সিলের ধুসর ছাইরঙা সিস্ ভোঁতা করতে থাকি। আমি দীর্ঘসময় অফলাইনে নেটে থেকে হোমপেইজের নানারকম ভিডিওগুলো দেখে দেখে একসময় বিরক্তি ধরাই নিজেই নিজেকে। বাবল শ্যুটার গেম খেলতে খেলতে কখন যেন অসময়ে ঘুমিয়ে পড়ি।ছোটছেলে এসে চোখ থেকে চশমা খুলতে এলেই জেগে যাই। ছেলেটা আমাকে ভর্তসনা করে বলে ওঠে–‘ এই অসময়ে কেউ ঘুমায়?’ আমি ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে থাকি। মাঝ রাত্তিরে ড্রইং ডাইনিংএ পায়চারী  করতে দেখে মেয়ে আৎকে ওঠে-‘ তুমি আজ সন্ধ্যায় ঘুমাইছো না? তোমারে যদি কালকে ঘুমাইতে দেখি,  দেইখো -বুইঝো কি করি?’ আমি হাসি-‘ কি করবি? মেয়ে চোখ রাঙিয়ে বলে -‘ গায়ে পানি ঢাইলা দিবো’ আমি কি করে বলি ওদের — আমিও সব নিয়ম মাফিক ভালো থাকতে চাই। পারছি না কেন? আমি আসলে কেমন?

একজন বন্ধু আছে আমার,  প্রায়ই ইনবক্সে টুকটাক কথা বিনিময় হয় তাঁর সাথে। কথার চেয়ে ঝগড়াঝাটি হয় বেশি। স্বভাবতই আমার রাগ বেশির কারনে এ যাবত তিনবার আনফ্রেণ্ড করেছি, আবার বন্ধুটাই রিকোয়েস্ট অনুরোধ উপরোধ…. প্লিজ এ্যাড করে নে’ আবার গালাগালি করি — তোর লাজ হয় না? কেন বার বার রিকোয়েস্ট করিস?

: তোকে তো ছেড়ে যাবো না!

— এই তুই কি এহনো চেনো না আমারে?

: কি বিষয়ে?

— আমার সম্পর্কে তোর ধারনা কি?

: তুই একটা বদমেজাজি নারী

— আর?

: অনুভূতিহীন

–আর?

: নির্দয়, নিষ্ঠুর

–আর?

:তবে তোর কিছু গুণাবলীও আছে

–বে-গুণগুলাই গুইন্না যা

:বললাম তো!

— ব্যস্? এইটুকুই বদগুণ আমার?

: মাথামোটা

— বলতে থাক, আর?

: যা, আর কমু না।

–ওক্কে , গুইন্না রাখলাম।

 

খুব উপকারে লাগে মাঝে মাঝে এরকম কারো কারো কাছে নিজেকে চিনতে /জানতে পারাটা। কি দুর্দান্ত সাহস আমার বলুনতো! মাথামোটা জ্ঞান নিয়ে আমি কি সব বকে যাই (লিখে) সদর্পে এখানে সেখানে?

 

আসলে ওই যে ঘাড়ত্যাড়ামী করে একটা কথা সবসময় বলি!

*আমি এমনই…….*

** ছবি গুগল থেকে নেয়া।

১৭২জন ৪২জন
0 Shares

১৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য