আমি এবং ইমদাদুল হক মিলন স্যার

রুমন আশরাফ ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, শনিবার, ০২:৫৯:৩০অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৭ মন্তব্য

তখন ২০০৫ সাল। নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার প্রেস ক্লাবের সভাপতি জনাব বিল্লাল হোসেন রবিন ভাই আমাকে একদিন প্রেস ক্লাবে ডাকলেন। আমি গেলাম। যদিও তখন প্রায় নিয়মিতই যাতায়াত ছিল আমার। পুরো দেশ জুড়ে তখন জাতীয় দৈনিক পত্রিকা “আমার দেশ” খুব চলছিল। রবিন ভাই আমাকে একটি প্রস্তাব দিলেন। আমাকে উনি  “আমার দেশ” পত্রিকার পাঠক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দেখতে চান। আমি তাঁর ইচ্ছাকে গুরুত্ব দিলাম। রাজী হয়ে গেলাম। অবশেষে ৪ এপ্রিল ২০০৫ সালে তৎকালীন এম.পি মহোদয় জনাব গিয়াস উদ্দিন সাহেব এবং থানা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি জনাব মজিবুর রহমান সাহেবের উপস্থিতিতে একটি জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আমাকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পাঠক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনীত করা হয়। “আমার দেশ” পত্রিকার পাঠক ফোরামের উপদেষ্টা ছিলেন প্রখ্যাত লেখক ইমদাদুল হক মিলন স্যার। ২০০৫ সালে ওনার পঞ্চাশতম জন্মদিন উপলক্ষে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে একটি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সিদ্ধিরগঞ্জ প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে স্যারকে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য আমরা অনেকেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হই। সাংবাদিক রবিন ভাই, শিপলু ভাই, সৌরভ ইমাম ভাই, ক্যামেরা ম্যান ইব্রাহীম ভাইসহ অনেকেই গিয়েছিলাম ঐ অনুষ্ঠানে। স্যারকে ফুলের তোরা দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর দায়িত্ব ছিল আমার উপর। খুব কাছে থেকে সেদিন স্যারকে দেখেছিলাম। করমর্দনের পর স্যার আমার মাথায় হাত বুলিয়ে দিলেন।

 

এরপর একসময় পত্রিকাটি বন্ধ হয়ে যায়। আমিও ব্যস্ত হয়ে পড়ি কর্মজীবনে। স্যার এর সাথে এরপর দীর্ঘদিন আর দেখা হয়নি।

 

গতকাল গিয়েছিলাম বই মেলায়। স্যারকে দেখলাম। ঠিক যেন আগের মতই আছেন দেখতে। কাছে গিয়ে স্যারকে আমার পরিচয় দিলাম। উনি মৃদু হেসে হাত বাড়িয়ে দিলেন। প্রায় পনের বছর পর আবারও করমর্দন হল। মিষ্টভাষী, বিনয়ী স্যার এর সাথে কিছু বাক্যালাপ হল। সুন্দর এই মুহূর্তকে ধরে রাখতে একই ফ্রেমে বন্দী হলাম আমরা। মহান আল্লাহ্‌ ইমদাদুল হক মিলন স্যারকে দীর্ঘদিন বাঁচিয়ে রাখুক। আমীন।

১২৭জন ৩৮জন
6 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য