আমার স্মৃতি কথা!

নিবিড় রৌদ্র ১২ ডিসেম্বর ২০১৫, শনিবার, ০১:২১:২১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ১২ মন্তব্য

স্নিগ্ধ আলোক ছুঁয়ে ফুল গাছটা নূয়ে
হিমেল আদর বা’য়ে ভেজা মাটি পায়ে
শিশির, মেঘ আর সোনারোদের প্রীতি
এইটা আমার সকাল বেলার স্মৃতি।

বেলা বাড়তো যখন উজ্জ্বল নীল গগন
বিদ্যালয়ে বইয়ের পাতায় আলো খুঁজার লগন
ছুটির দিনে উড়ি, ডাঙ্গুলী আর ঘুড়ি
এমনি করে দুপুর আসতো বাড়ি।

কাঠফাটা রোদ নামে নির্জন পাড়া গ্রামে
বিষন্নতা কিনতে হতো অল্প কিছু দামে
শোকের নীরবতা, স্বেচ্ছাচারী ব্যাথা
এইটা আমার মাঝদুপুরের কথা।

বিকেল হেঁটে এলে যেতাম নদীর কোলে
কাঁচাশস্যের ঘ্রাণে মন ডুবাতাম জলে,
পুরো মাঠে খেলা যুবক কিশোর যত
এমনি করে কেেট যেতো আমার বিকেল কত।

সন্ধ্যা হলে পরে ফিরে যেতাম ঘরে
প্রতি সন্ধ্যা পুড়তো আমার একঘেয়েমির জ্বরে
পড়া- টিভি- ঘুম, বিদ্যুৎ গেলে মোম
ঝড়ের বেলা সন্ধ্যা আমার বৃষ্টি রুমঝুম।

রাত্রি এলে নেমে জীবন যখন থেমে
স্বপ্ন এসে নয়ন জুড়ে স্পর্শ দিতো প্রেমে
এইটা আমার কল্প-কথকথা
ঠিক এভাবেই দিন কাটতো একা- নিঃস্তব্ধতা।

আমার স্মৃতি কথা!
তারিখ- ১৮।০৪।১৫ ইং

৯২৭জন ৯২৫জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ