আমার রমণীর দুঃস্বপ্ন

নাজমুল হুদা ৯ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার, ০৯:৩০:৪৭অপরাহ্ন কবিতা ২৩ মন্তব্য
এবার স্বপ্ন দেখছি
ছাগলের চারণভূমিতে হেঁটে যাচ্ছি
দেশীয় জাতের ছাগলেরা ত্রি- নীতির বিশ্বাসী।
.
প্রথম নীতির দৃশ্যপটে দেখি —
ওরা ক্ষমতার লালায় ভিজিয়ে রাখে
তাঁদের বংশবিস্তার কার্যক্রম–নিশিতে
সংঘবদ্ধ চর্চা করে নিষিদ্ধ কোনো লোভে
সেই থেকে ছাগল ধ্যানমগ্ন ভাবে-
অলৌকিক দাপটে মাঠে সব কিছু তাঁর দোয়ায়
নেড়ি কুত্তার মতো উগ্রপন্থী- কী খায়েশ মেটায়?
.
দ্বিতীয় দৃশ্যপটে দেখি-
ওরাও ক্ষমতার লোভে ছটপট করে
এখন বংশবিস্তার কোণঠাসা- বার্ধক্যে।
পরাবাস্তব নীতির সুখ দুঃখ বলে-
স্বচ্ছতার এক পরিবর্তন উপরওয়ালার কাঠিতে
কুত্তা দোষের দায়ে অসহায়, না তন্ত্রমন্ত্র বিপাকে?
.
এবং শেষ নীতির করুণ দৃশ্যপটে-
নাদুসনুদুস কথার ছলে নীতিবানরা ডুবে যায়
ছাগলরূপী নেড়ি কুত্তারা যাকে তাকেই দোষে
বারবার মুক্তির স্লোগান উঠে অলিতে গলিতে
স্বপ্নের ভূমিতে নীতিরা জলাতঙ্কে-
অন্ধকারে নব যুগ চুষে খায় ছাগলরূপী কুত্তায়।
.
স্বপ্ন তাড়া করে হঠাৎ জেগে গেলে
দেখি আতংকগ্রস্ত স্বপ্নভাঙা বুকে থুথু ছিটায়
ভোরের পরশে মাথা রেখে বুকে রমণী বলে-
শুনো! ভয় পেয়েছি। জীবনপ্রণালির গবেষণায়
ভারি প্রশ্বাসে আবিস্কার করি- ওরা মানুষ ছিলো?
.
আমি নিস্তব্ধ
আমি নির্বাক
তাঁর ভগ্নস্তূপ আগলে রেখে শুনতে পাই
হুবহু মিলে যাচ্ছে; পাথরে খোদাই করে লিখা-
গণধর্ষণতান্ত্রিক এক লালার দেশ ভালোবাসি
নারীর ক্ষমতায়ন; আজ বিবস্ত্র চিৎকার করি।
১৯৮জন ৭জন
0 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য