আমার প্রথম মৃত্যু

ফজলে রাব্বী সোয়েব ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, ০৮:০৯:৪৯পূর্বাহ্ন কবিতা ১০ মন্তব্য

সবার খুব কাছে থেকেও আজ আমি

যোজন যোজন দূর।

আমার বাবাকে দেখলাম,

আনমনে শুকনো চোখে তাকিয়ে আছে

ফ্রেমে বাঁধানো আমার সেই ছবিটার দিকে।

মাকে দেখলাম হঠাৎ ডাকছে আমায়,

হয়তো বা ভুল করে, কিছু একটা মনে হতেই

আমার মা কেমন যেন বিষন্ন হয়ে গেল।

 

আমার স্ত্রী আমাকে হারানোর ধাক্কাটা

সামলে উঠেছে অনেকটাই।

জীবনের প্রয়োজনে শোক ভুলে সামনের দিকে

এগিয়ে যাওয়াটাই তার মূলমন্ত্র হয়ে উঠেছে এখন।

আমার ছেলের বোধহয় বাবাকে মনে পড়ে না একদম!

পড়ার কথাও নয়, আমি যখন এই নতুন জায়গায় চলে

এলাম তখন বয়স তার খুব বেশি একটা নয়।

কিন্তু আজ কেন জানি ওকে বিষন্ন দেখাচ্ছে!

তবে কি আমার কথা মনে পড়লো তার!

 

ভাই বোনরা নিজেদের সংসার নিয়ে ব্যস্ত।

এখন আর মরে যাওয়া ভাইটির কথা মনে

আসে না তাদের। অথচ একটা সময় ছিল,

আমি ছিলাম তাদের কাছে অন্তঃপ্রাণ!

 

প্রাণের বন্ধুরা এখনো আগের মত আড্ডা দেয়।

সেই দুস্টামি, খুনসুটি লেগেই রয়েছে এখনো।

আচ্ছা তোরা কি আগের মতই আমাকে মিস করিস!

তোদের কথা কিন্তু আমার বড্ড মনে পড়ে,

সেই খুঁচিয়ে কথা বলা,

হাসতে হাসতে তোদের উপর গড়িয়ে পড়া,

মাঝে মাঝে অভিমানে তোদের সাথে

কথা বন্ধ করে দেয়া, সবই মনে পড়ে আমার!

তোরা ভাল থাকিস।

 

মৃত্যুর পরের জীবনটা এভাবেই কেটে যাচ্ছে আমার।

ভাল মন্দের মিশ্রণে উপভোগ করে যাচ্ছি জীবনটা,

এ জীবনের শুরু আছে ঠিকই,

কিন্তু এর কোন শেষ নেই।

মনের অজান্তেই চোখ দুটো ভিজে উঠেছে আমার,

হঠাৎ ই মনে হলো, হয়তো আর কিছুদিন বাঁচতে পারতাম!

হয়তো আরও কিছুদিন সবার সঙ্গে

সুখ আর দুঃখ ভাগ করতে পারতাম!

৩১৯জন ২৪২জন
5 Shares

১০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য