আমার কিছু কথা

হৃদয়ের স্পন্দন ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫, বুধবার, ১০:২৫:৪৫পূর্বাহ্ন অন্যান্য, বিবিধ ১১ মন্তব্য

শাহবাগ – একটু নিরপেক্ষ দৃষ্টিতে দেখার চেষ্টা নামক একটা ব্লগ পোষ্ট করেছেন ফাহিম। তার কথা ছিলো হুট করেই শাহবাগে জড়ো হলো একদল তরুন। হাতে প্ল্যাকার্ড নির্ঘুম রাত। ধীরে ধীরে আরো অনেকের যোগ দেওয়া স্লোগান মুখর সে সময়ে আমিও কাটিয়েছি নির্ঘুম রাত কখনো টিভি সেটে কখনো শাহবাগে বসে।
শাহবাগ সত্যি আবেগের ব্যাপার ছিলো বিবেগের নয় সেটাও বলছিনা, বিবেগের ও ছিলো আবেগেরে মাত্রা টা সেখানে ৭০:৩০
মুদ্রার এ পিঠ ওপিঠ দুটু পিঠ ই বিদ্যামান এক পাশে জলের ফুল শাপলা তো অন্য পাশে শুধু মানুষ ই নয় যৌনতার সুশীল ট্যাগে মাঝে একটা বাচ্চা। তেমনি শাহবাগের বীপরীতেও কিছু কথা উঠে এসেছিলো সেখানে বিরিয়ানির লোভ, মাদকাসক্তদের আড্ডা, রাতের বেলায় তরুন প্রজন্মের নামে অশ্লীলতা। লাকি কে তো অহরহই সাধারন মানূষ বেশ্যা বলে গালি দিয়ে এসেছে ইমরানের নাম হয়েছে এইডস সরকার। এটাই স্বাভাবিক মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ। তবে আমি যেসব কথা বলছি সেসব কথা অর্থহীন। ফাহুইম শাহবাগ কে নিরপেক্ষ দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানিয়েছে। কেননা শাহবাগ সত্যি আজ ইতিহাসের অধ্যায়। বেঁচে থেকে দেখে না গেলেও মরার পর হলেও কিংবা হয়তো নেক্সট আওয়ামীলিগের আমলে যখন বাচ্চারা বি এন পি সরকারে জন্মগ্রহন আর আওয়ামি সরকারে পড়াশোনা করবে তখন তাদের পাঠ্যপুস্তকে ইতিহাস থাকবে সমাজ বইয়ে। বাংলা মূল পাঠে থাকতে শাহবাগ একটি গনজাগরন অথবা পুনরায় একাত্তর। সে গল্পের প্লট আমি লিখে দিতে পারি কি হবে । সাঈদ জামিলের মত যারা জীবনানন্দ পায় তারা লিখে দিবে গল্প। সেখানে ইতিহাস লেখা থাকবে আওয়ামিলিগ বিচার করতে চেয়েছিলো বি এন পি বাদ স্বেধেছিলো এদেশে তখন নব্য রাজাকার জন্ম নিয়েছিলো বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকি বীরউত্তম। উনাকে পাকিস্তানিরা কিনে নিয়ে গিয়েছিলো উনি আওয়ামিলিগের বিরোধিতা করেছিলেন তবে শাহবাগের পক্ষে থেকে তবে শব্দ ব্যাবহার করেছিলেন, ইত্যাদি ইত্যাদি। রাজাকার কমান্ডার ট্যাগ খাবে মির্জা ফখরুল। এই লেখাটাও অন্যায় হচ্ছে আমার ভুল বুজবেন না। একটা ইতিহাস কখনই সঠিক থাকেনা সময়ের সাথে সাথে বিকৃতি হয় এটাই স্বাভাবিক। বলা যায় আজকের মেজর জিয়া নাকি রাজাকার ছিলেন। উনি বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে জড়িত উনি এটা করেছেন উনি তাহের খুন করেছেন। লাইক এস বি এন পি এলেও এমন টাই হয় বঙ্গবন্ধু আসলে যুদ্বের সময় পালিয়ে ছিলেন এসব কথাই বলা হয়ে থাকে। বাংলাদেশের রাজনীতি আমি বুঝিনা জানিনা তাই এর থেকে বেশী কিছু বলার নাই। হিসেব মেলানোর পালা ফখরুদ্দিনের। ফখরুদ্দিন না ভোট প্রথা রেখেছিলেন তার দেওয়া নির্বাচনের সময়। একটা বার না ভোট দিলেই সে ফখরুদ্দিন গঠিত পুনরায় সরকার হত। আওয়ামি বি এন পি? আজ চাঙ্গে থাকত চাঙ্গে। কথা সেটাও না।
শাহবাগে যখন প্রথম দিন তার পরের দিন অর্থাৎ দ্বিতিয় দিন বিকাল তিন টায় আমি টি এস সি বসে চা খাই। সেদিন রাতে থাকবো এমন চিন্তা ভাবনা ছিলো থাকা হয়নি সেদিন। এর দু একদিন বাদে সঠিওক মনে নাই আমি তখন শাহবাগে উপস্থিত থানার সামনে দাঁড়িয়ে বিড়ি ফুকছি্‌ হুট হাট অনেক শোড়গোল শুরু হয়ে গেলো কিরে কি হয়েছে? পাশে বিড়ি ফুকতে থাকা আলমগীরের নিকট প্রশ্ন ছুড়ে দেওয়াতে উত্তর এসেছিলো আওয়ামিলিগের একজন নেতা এসেছে তাকে মঞ্চে উঠতে দেওয়া হয়নি। আর কথা শুনিনি ও তখনও কি যেনো বলছিলো আমি শুধু মনে মনে আল্লাহর নিকট শুক্রিয়া আদায় করছিলাম। আবেগে সিগেরেট ফেলে দিয়েছিলাম, যে এবার ব্জনতা জাগতে শুরু করেছে, রেজনৈতিক নয় জনতার জাগতিক এবার শুরু হবে। এ দেশ সত্যিকার অরথে বাঙ্গালির তাই প্রমান হচ্ছে। তার আর কিছুদিন
চলুন
বিরিয়ানি বাংলা
পুলিশ প্রটেকশন
নেতা দের উপস্থিতি
আল্লাহ ও তার নবীকে আক্রমন করে কথা বলে
দলকানা
রুমি স্কোয়াড কে ভিন্ন করা
শাহাবাগ শুরু হুয়েছিলো কেনো শাহবাগ আজ কোথায় সেটা মাঝপথে ভেবে দেখি (মাথা নষ্ট হবার উপক্রম)
শাহবাগে কেনো বি এন পি এলনা কিংবা পোষ্টে কেনো বি এন পি র উপস্থিতি নেই সে কথা অনেকেই বলেছেন। বলেছেন পোষ্ট নিরপেক্ষ নয় আপাতত দৃষ্টিতে কৌশলের আশ্রয় নেয়া হয়েছে। বিনা অনুমতিতে কারো রাজনৈতিক পরিচয় দেওয়া ঠিক না তবু ইঙ্গিতে বলিউ ফাহিম এমন এক দল সাপোর্ট করে যতটা জানি সে দল মুক্তিযুদ্বের পক্ষের একমাত্র লিগেল দল।

ব্লগার থাবা বাবার জানাযা কতটা জরুরি ছিলো সেটা আমার জানার দরকার নাই আমার জানা দরকার থাবা কে যে সম্মান দেওয়া হয়েছিলো সে কি সত্যি সেই সম্মান প্রাপ্য? তবে আজকে শাহবাগ যাবার আগে আমি বি এন পি রাজাকার বিরোধি মোল্লাদের মায়রে টুট টুট দিয়া কোনো পোষ্ট দিয়া বি এন পির পেট্রোল বোমায় মারা যাই তবে যেন আমাকেও সে মর্যাদায় সমাহিত করা হয়। কিংবা যদি আওয়ামি বিপক্ষি পোষ্ট দিয়া মারা যায় তাইলে আমারে বি এন পির একজন স্থায়ী কমিটির সদস্য ঘোষনা করা হয়। সব কিছুই দেখলেন না দেখলেন না হেফাজতে ইসলামের উপর বর্বরতা। অস্বিকার করতে পারবেন তবে দু একটা ভিডিও দেখেন নি এমন কথা বুকের উপর হাত দিয়ে কেউ বলতে পারবেন? জানি পারবেন না। পাকিরা হটাথ আক্রমন করেছিল ২৫শে মারচ রাতে আর হেফাজত আক্রান্ত হয়েছিলো স্বাধিন জনগনের দেশে, ভাই পক্ষে বিপক্ষে অনেক কথা লেখালেখি করা যাবে, টিভিতে টক শোতে বসা যাবে, রাজনৈতিক কথা আমি আপনি বলতে পারবো। সাম্প্রতিক সময়ের টক শো গুলুতে বি এন পির পক্ষে ল্কোকজন রা তেমপ্ন কথা বলেন না। প্রতিপক্ষের দেওয়া যে জবাব উচিত সেটা আমার টিভির সামনে বসে ভাবি এটা কেনো বললেন না কিন্তু কি করে বলবেন ব্যাটা যে গুম আর গ্রেফতার আতঙ্কে। আপনারা বলছেন গনত্রন্তের দেশ। আমি বলছি এক নায়কের দেশ, আমি বলছি ৫ ই জানুয়ারি প্রহসন। বরতমানে এতো পেট্রোল বোমা এত হতাহত তবে আওয়ামিলিগের ভয় কিসে? নেমে যান। আবার নির্বাচন দিন। জনগন যদি সত্যি আপনাদের যোগ্য মনে করে নিঃসন্দেহে আবার ক্ষমতা পাবেন।

সাত তারিখ আমি বন্ধু কুতুব তানভীর ছোটো ভাই মাহামুদ আশিক বিপন সহ অনেকেই বই মেলায় গিয়েছিলাম। ফেরার পথে যপখন এই ছয় জন শাহবাগ থানা গেটের অপজিটে তখন দুইটা ককটেল ফাটে শাহবাগের থানা গেটে একদম প্রবেশ মুখে, আমি একজন পুলিশ কেও দেখিনাই ডানে বামে তাকাতে। কিংবা গেটে অবস্থান করতে? তাহলে কোথায় হলো কেনো হলো? গনজাগরন মঞ্চক্সে তখন স্লোগান চলছে বোমা হামলার আন্দোলন, থামবে না থামবে না। যারা সেসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন তারা শুনেছেন। এখন এটার ব্যাখা অপব্যাখ্যা দুটুই দেওয়া যায় লাইক এস মুদ্রার এপিঠ ও পিঠ। আমি শুধু একটাই কথা বলি শাহবাগ কোনোদিন আর জাগবেনা, একে দলকানারা নষ্ট করে ফেলেছে তবে মনে প্রাণে চাই প্রথম তিন দিনের শাহবাগ গড়ে উঠুক আর একটা বার চলুক টানা একমাস। প্রথম তিন দিন যেমন শুধু রাজাকারের ফাসি চাওয়া হয়েছিলো, আল্লাহ নবী কে গালি দেওয়া হয়নি, বিরিয়ানির প্যাকেট বিলানো হয়নি মাতলামোর ভিডিও বের হয়নি তেমন একটা শাহবাগ প্রয়োজন আরেকবার অন্তত বাংলা কে কলুষ মুক্ত রাখতে। না হলে ইতিহাস বিকৃত কপ্তখানি হয় একদিন হাড়ে হাড়ে টের পাবেন এ দেশ বাসী।

এক ভাইয়ার মন্তব্য পড়েছিলাম তার মুক্তিযোদ্বা বাবা কিংবা চাচা কষ্ট পেয়েছিলেন যখন একজন রাজাকার কে কষ্ট দিয়ে মারা হয়। তারাও মানুষ ছিলেন, আন্তজারতিক অপরাধ আইনে যুদ্বাপরাধিদের বিচার কি করে করা হয় সেটা ফলো করা উচিত ছিলো বাংলার, বাংলা পারত। কিংবা বিচার বিভাগ কে স্বত্রন্ত করে দেওয়া হলে অথবা সেনাবাহীনির হাতে বিচার রাজাকারের বিচার ব্যাবস্থা তুইলে দেওয়া হলে নির্ঘাত সব কয়টা মজারা পড়ত বেরিয়ে আসত ঘরের ইদুর।

ভুল ত্রূটি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন

৬২৪জন ৬২৪জন
0 Shares

১১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ